আশুলিয়ায় খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মিছিল করায় সাবেক এমপি ডা: সালাউদ্দিনসহ ৮২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা


 বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মিছিল করায় আশুলিয়া থানায় ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক এমপি ডাঃ দেওয়ান মোঃ সালাউদ্দিন বাবুসহ ৮২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। ১২ ফেব্রæয়ারি সোমবার সকাল ৭টায় আশুলিয়ার বেরণ এলাকায় খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে শান্তিপূর্ণ মিছিল করে ঢাকা জেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক এমপি ডাঃ দেওয়ান মোঃ সালাউদ্দিন বাবুর নেতৃত্বে দলীয় নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় ওইদিন বেলা ৩টায় নিজ বাড়িতে খাবার খেতে গিয়ে ডিবি পুলিশের হাতে আটক হন ইয়ারপুর ইউনিয়ন বিএনপি’র সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক, ঐদিন বিকেলে গুমাইল উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে আটক হন আশুলিয়া থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক জিলøুর রহমানের ড্রাইভার বকুল হোসেন ও  নিজ বাড়ি থেকে দÿিণ গাজিরচট এলাকার লোকমান হাকিমের ছেলে আল আমিন ওরফে নাইম। পরে ১৩ ফেব্রæয়ারি আটককৃত ৩ জনসহ ৮২ জনকে আসামী করে বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে আশুলিয়া থানার এসআই কবির হোসেন বাদি হয়ে একটি নাশকতা মামলা ৩(ক)/৫/৬  ১৯০৮ সালের পরষ্পর যোগসাজশে জনসাধাণের জানমালের ÿয়ÿতির উদ্দেশ্যে বিস্ফোরণ ঘটনানো এবং সহায়তার লÿ্যে বিস্ফোরকদ্রব্য নিজ হেফাজতে রাখার অপরাধ রুজু করা হয়।

মামলায় আসামী করা হয়-সাবেক এমপি ডাঃ দেওয়ান মোঃ সালাউদ্দিন বাবু, ডেন্ডাবর এলাকার আইয়ুব খান, জামগড়া এলাকার মাসুদ (৩৬), নরসিংহপুর কালাম মাদবর ((৪০), জিলøুর রহমান, গাজীরচট এলাকার হানিফ (৪২), নিশ্চিন্তপুরের আব্দুল হাই, ডেন্ডাবরের আসাদুজ্জামান মোহন, কাঠগড়ার শাহিন সরকার (৩২), নরসিংহপুরের আপেল মাহমুদ (৪২), জাবি এর পিছনের আব্দুল খালেক (৪২), ঘুঘুদিয়ার আমির উদ্দিনর(৪০), বলিভদ্র বাজার এলাকার তাজুল ইসলাম কাজী (৩৮), চাকলগ্রামের শরীফ (৪০), গুমাইলের দেলোয়ার হোসেন সরকার (৪০), গকুলনগরের বাবুল মিয়া (৩২), পলাশবাড়ীর শওকত (২৮), বাইপাইলের তারা মন্ডল (৫০), ফজলুল করিম ওরফে ফজল মন্ডল (৫০), মনির মন্ডল (৩৭), কলতাসূতির ইকবাল হোসেন (৫০), নলাম বাগবাড়ির মোজাফফর হোসেন (৩৩), পলাশবাড়ির হানিফ (৩৩) পবনারটেক এলাকার মিন্টু (৩২), ভাদাইলের খন্দকার ফারুক (৩৫), ধামরাই এলাকার ওয়ালিদ (৩৮), ছায়াবীথির ওয়াপদা রোডের রাশেদ (৩৫)সহ অজ্ঞাত আরো ৪০ থেকে ৫০ জনসহ সর্বমোট ৮২ জন।

আসামীদের মধ্যে আব্দুল মালেক, বকুল ও নাইমকে আটক দেখানো হয়েছে। এসম তাদের কাছ থেকে একটি ব্যাগের কালো কসটেপ দিয়ে মোড়ানো একটি বোমা সদৃশ বস্তু, দুটো লোহার টুকরা, কিছু ভাঙ্গা কাঁচের টুকরা, কিছু পাথরের টুকরা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের  কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি