বোমা নয়, ফুল!


দৃশ্যটি এমন—বাড়ির গ্যারেজ থেকে গাড়ি নিয়ে বের হচ্ছেন ভাবনা। সঙ্গে চালক। গামছায় মুখ ঢেকে হাতে একটি প্যাকেট নিয়ে সদর দরজার পাশে হাঁটাহাঁটি করছেন চঞ্চল চৌধুরী। গাড়িটি ধীরে ধীরে রাস্তায় নেমে আসার সময়ই চঞ্চল প্যাকেটটি রাখলেন গাড়ির সামনের অংশে। তারপর? এমনভাবে গাড়ির ওপর কেউ কোনো প্যাকেট রাখলে যা হয়, যথারীতি ভয়ংকর কিছু ঘটার চিন্তায় পেয়ে বসল। বোমা–আতঙ্কে গাড়ির ভেতর থেকে রীতিমতো পড়িমরি করে বেরিয়ে এলেন চালক। পেছনের আসন থেকে ভাবনাও দ্রুত বেরিয়ে এলেন। কিংকর্তব্যবিমূঢ় অবস্থায় কেটে গেল মিনিট খানেক। পেছন থেকে লাঠি এনে নেড়েচেড়ে ভাবনা যখন প্যাকেট হাতে নিয়ে খুললেন, তখনই রহস্যের অবসান ঘটল। বোমা নয়, প্যাকেট ভরা বেলি ফুল!
শুটিংয়ের ফাঁকে চঞ্চল চৌধুরী ও ভাবনা

এমন এক মজার দৃশ্যের শুটিং হলো গত সপ্তাহে। মাসুদ সেজান নির্মাণ করছেন টেলিছবি ওয়াও। উত্তরার একটি বাড়ির সদর দরজায় বেশ কিছুটা সময় ধরে চলল শুটিং। এমন দৈনন্দিন শুটিং–ঘটনার সঙ্গে উত্তরাবাসী পরিচিত হলেও ঠিকই ভিড় জমে গেল রাস্তায়। তাই তো সংলাপহীন এই একটি দৃশ্য ধারণ করতেই নির্মাতার ঘাম ছুটে গেল। চঞ্চল চৌধুরী ও আশনা হাবীব ভাবনার কয়েক দফা চেষ্টার পর দৃশ্যটি মনঃপূত হলো তাঁর।
মাসুদ সেজান বলেন, পুরোপুরি প্রেমের গল্প। গ্রাম থেকে শহরে আসা এক যুবকের জীবনের সঙ্গে একটি মেয়ের জড়িয়ে পড়ার গল্প। এটি নির্মাণ করা হচ্ছে বাংলাভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানমালায় প্রচারের জন্য। তিনি জানান, শিগগিরই টেলিছবিটির ছয় পর্বের সিক্যুয়াল নির্মাণ করা হবে, যা প্রচারিত হবে আগামী ঈদে।


footer logo

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের  কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি