A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: getimagesize(http://fulkinews24.com/uploads/news/18415/উজড়-কর-নরপদ-সথন-৩৫-হজর-রহঙগ.jpg): failed to open stream: HTTP request failed! HTTP/1.0 400 Bad request

Filename: views/template.php

Line Number: 36

Backtrace:

File: /home/fulkinews24/new/application/views/template.php
Line: 36
Function: getimagesize

File: /home/fulkinews24/new/application/controllers/Article.php
Line: 97
Function: view

File: /home/fulkinews24/public_html/index.php
Line: 292
Function: require_once

বাংলাদেশ সোমবার 25, March 2019 - ১১, চৈত্র, ১৪২৫ বাংলা

বন উজাড় করে নিরাপদ স্থানে ৩৫ হাজার রোহিঙ্গা

ফুলকি ডেস্ক | প্রকাশিত ১০ জুলাই, ২০১৮ ১২:০২:৩১

চলতি বর্ষা মৌসুমে ঝুঁকিতে থাকা দুই লাখ রোহিঙ্গার মধ্যে ৩৫ হাজার রোহিঙ্গাকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বাকি আরও দেড় লাখ রোহিঙ্গা কম-বেশি ঝুঁকিতে থাকলেও আপাতত তাদের সরানোর পরিকল্পনা নেই। এরপরও অবস্থা খারাপ হলে কিছু রোহিঙ্গাকে পর্যায়ক্রমে সরিয়ে নেওয়া হতে পারে।

দীর্ঘ দুই মাস ধরে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ের ঢালের বিভিন্ন ব্লক থেকে এসব রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেওয়া হয়। তবে এসব রোহিঙ্গাকে নতুন স্থানে সরিয়ে নিতে পর্যাপ্ত বন উজাড় করা হয়েছে। সেখানে দায়িত্বরত বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. আবুল কালাম বলেন, ‘চলতি বর্ষা মৌসুমে আমরা দুই লাখ রোহিঙ্গাকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসাবে চিহ্নিত করেছিলাম। এরমধ্যে চরম ঝুঁকিতে ছিল ৩৫ হাজার রোহিঙ্গা। আমরা  মূলত এই ৩৫ হাজার রোহিঙ্গাকে দ্রুত সরিয়ে নিয়েছি। অন্যান্যদের অবস্থা বুঝে পর্যায়ক্রমে সরিয়ে নেওয়া হবে। দুর্যোগ বেশি না হলে বাকি রোহিঙ্গাদের তেমন কোনও সমস্যা হওয়ার কথা নয়।’

আবুল কালাম আরও বলেন, ‘আমরা জরুরিভিত্তিতে যেসব রোহিঙ্গাদের সরানোর দরকার, মুলত তাদের সরিয়ে নিয়েছি। এজন্য ক্যাম্পের ভিতরে নতুন জায়গা করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এর সহযোগিতায় এসব রোহিঙ্গাদের সরানো হয়। প্রয়োজনে আরও রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেওয়া হবে।’ গত ২৫ আগস্টের পর মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের নাগরিকরা দেশটির সেনাবাহিনীর হত্যা ও নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসেন।

তখন থেকে এ পর্যন্ত সাত লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছেন। এর আগে পালিয়ে আসা চার লাখসহ কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে ১২টি ক্যাম্পে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা অবস্থান করছেন। বন বিভাগের হিসাব অনুযায়ী, সাড়ে পাঁচ হাজার একর বনভূমিতে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো গড়ে ওঠার কথা বলা হলেও বাস্তবে ১০ হাজার একরেরও বেশি বনভূমিতে রোহিঙ্গারা অবস্থান করছেন।

তারা বসতি গড়ে তুলতে নতুন নতুন বনভূমি দখল করে গাছ কেটে পাহাড় ন্যাড়া করে ফেলছেন।

কক্সবাজার বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি দীপক শর্মা দিপু বলেন, ‘ঝুঁকিতে থাকা রোহিঙ্গাদের সরানোর নামে নতুন করে পাহাড় কেটেছে প্রশাসন।

রোহিঙ্গাদের এক পাহাড় থেকে আরেক পাহাড়ে সরিয়ে নিয়ে এ কেমন ঝুঁকিমুক্ত করতে চাইছে প্রশাসন? নতুন বসতি তৈরির অজুহাতে এনজিওগুলো যেভাবে পাহাড় কেটে মরুভূমিতে পরিণত করছে, তাতে মনে হয় বনভূমি সংরক্ষণের কেউ এখানে নেই।

যেভাবে পাহাড় কেটে সাবাড় করা হচ্ছে, এতে এনজিওগুলোর স্বার্থসিদ্ধি হলেও এলাকার মানুষের জন্য ভয়াবহ পরিণতির দিন ঘনিয়ে আসছে। এ থেকে তখন কেউ রেহাই পাবে না। তাই এনজিগুলোর এসব অপকর্ম ঠেকাতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’ কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আলী কবির বলেন, ‘বসতি নির্মাণের জন্য প্রথম দফায় সাড়ে পাঁচ হাজার একর বনভূমি রোহিঙ্গাদের দখলে চলে গেছে।

কোনও ধরনের পরিকল্পনা ছাড়াই এটা করা হয়েছে। এজন্য বন বিভাগের কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি। আর এখন নতুন করে যেসব পাহাড় কাটা হচ্ছে, সঠিক পরিকল্পনা না নিলে বর্ষা মৌসুমে সেগুলোও ঝুঁকিতে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।’

 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

নির্মাণাধীন ভবনে ছাত্রলীগ নেতার মরদেহ

নির্মাণাধীন ভবনে ছাত্রলীগ নেতার মরদেহ

মাদারীপুর সংবাদদাতা : মাদারীপুরে জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি লিমন মজুমদারের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকালে

স্বাধীনতা পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্বাধীনতা পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

স্বাধীনতা পুরস্কার-২০১৯ বিজয়ীদের হাতে পদক তুলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন

রাজধানীতে হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবন

রাজধানীতে হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবন

 রাজধানীর বালুরঘাট এলাকায় রোববার রাতে একটি ছয়তলা ভবন আরেকটি ভবনের দিকে হেলে পড়েছে। হেলে পড়া


আতিয়া মহলের অভিযান : দুই বছরেও আসেনি চার্জশিট

আতিয়া মহলের অভিযান : দুই বছরেও আসেনি চার্জশিট

দেশে-বিদেশে আলোচিত সিলেটের দক্ষিণ সুরমার আতিয়া মহলে জঙ্গিবিরোধী সেনা অভিযান ‘অপারেশন টোয়াইলাইট’ এর দুই বছর

জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের সভাপতি আটক

জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের সভাপতি আটক

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধকে অবমাননা করে পোস্ট ও রাষ্ট্রবিরোধী প্রপাগান্ডা ছড়ানোর অভিযোগে জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের

বাড়ছে দূতাবাস, গুরুত্ব পাচ্ছে অর্থনৈতিক কূটনীতি

বাড়ছে দূতাবাস, গুরুত্ব পাচ্ছে অর্থনৈতিক কূটনীতি

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশের কূটনীতির প্রাধান্যের ক্ষেত্রে পরিবর্তন এসেছে। এখন রাজনৈতিক কূটনীতির চেয়ে অর্থনৈতিক কূটনীতিকে


যুদ্ধাপরাধীর বিচারে সাফল্যের ৯ বছর

যুদ্ধাপরাধীর বিচারে সাফল্যের ৯ বছর

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় সংঘটিত হত্যা, গণহত্যা, অগ্নিসংযোগ, দেশান্তর, ধর্মান্তরিতকরণসহ মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচারের জন্য গঠিত আন্তর্জাতিক

আজ ভয়াল ২৫ মার্চ

আজ ভয়াল ২৫ মার্চ

 ভয়াল ২৫ মার্চ কালরাত আজ ।জাতীয় গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ বাঙালি জাতির জীবনে

প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

আগামীকাল ২৬শে মার্চ। মহান স্বাধীনতা দিবস। আর তাই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনে প্রস্তুত



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ






আজ ভয়াল ২৫ মার্চ

আজ ভয়াল ২৫ মার্চ

২৫ মার্চ, ২০১৯ ১১:০০

প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

প্রস্তুত জাতীয় স্মৃতিসৌধ

২৫ মার্চ, ২০১৯ ১০:৫৮