বাংলাদেশ সোমবার 18, June 2018 - ৪, আষাঢ়, ১৪২৫ বাংলা

জালিয়াতি চক্রের হাতে বন্দি আগারগাঁয়ের পাসপোর্ট অফিসের নজরুল ইসলাম

বিশেষ প্রতিনিধি | প্রকাশিত ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:১৭:২৪

দেশের বাইরে যেতে চাইলে সবচেয়ে প্রথম ও প্রধান গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল পাসপোর্ট করা। কিন্তু এ কাজটি করতে গেলে সাধারণ মানুষকে নানা রকম ঝক্কি-ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসকে কেন্দ্র করে রয়েছে অনেকের নানা রকম তিক্ত অভিজ্ঞতা।

দুষ্টচক্রের তালুবন্দি হয়ে পড়েছে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসটি। কর্তব্যরত প্রশাসন, অফিস কর্মচারী ও স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে একটি বড় ধরনের সিন্ডিকেট। যার কারণে পাসপোর্ট পেতে নানা রকম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

কিন্তু দালালের সঙ্গে চুক্তি করে কিছু ঘুষ দিলে খুব সহজেই পাওয়া যাচ্ছে পাসপোর্ট নামক সোনার হরিণ। পাসপোর্ট অফিসের গেটের সামনে অবৈধভাবে সারি সারি গাড়ি পার্কিং করা রয়েছে। অফিসের মূল গেটের সামনে অসংখ্য মানুষের ভিড়। সেখানে গিয়ে দেখা যায় ফরম বিতরণ করা হচ্ছে। একটি ফরম হাতে নিতেই একজন বলেন, ‘ভাই কোনো সমস্যা হলে বলতে পারেন,
সব সমস্যা সমাধান করে দেব ‘।  ফরম কীভাবে পূরণ।করব জানতে চাইলে তিনি ওখান থেকে একটু পাশে নিয়ে বলেন, ‘সব আমি করে দেব মাত্র ১০০ টাকা দিলেই হবে ‘। 

আর বুঝতে বাকি থাকল না এ ব্যক্তি পাসপোর্ট অফিসের একজন দালাল। দালাল টি পরিচয় জানতে পেরে দৌড়ে পালাল এবং অন্যদের ও সতর্ক করে দিল। পাসপোর্ট অফিসের ভেতরে ঢুকতেই দেখা যায়, যাবতীয় কাগজসহ ফরম জমা দেয়ার কয়েকটি দীর্ঘ লাইন। পাসপোর্টের ব্যাপারে জানতে কথা বলা হয় ফরম জমা দেয়ার লাইনে দাঁড়ানো হাফিজুর রহমানের সঙ্গে। বেসরকারি চাকুরীজীবী হাফিজুর রহমান জানান,  ছোট ভাইয়ের পাসপোর্ট করার জন্য এসেছেন। তিনি বলেন, ‘সকালে ফরম জমা দেয়ার জন্য এই লাইনে
দাঁড়িয়েছি কিন্তু এখনও জমা দিতে পারিনি, অথচ যারা দালাল ধরে কাজ করছেন তারা লাইনে না দাঁড়ালেও ফরম জমা হয়ে যাচ্ছে’। 

পাসপোর্টের কাগজপত্রের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন,পাসপোর্ট করতে যেসব কাগজ লাগে তার সবকিছু ঠিক থাকলেও টাকা খাওয়ার জন্য কর্মকর্তারা যেখানে সেখানে লাল দাগ দিয়ে দেন’। যার ফলে ওই কাগজটা দিয়ে আর কোনো কাজ হয় না। আর যদি কিছু টাকা দেয়া হয় তাহলে ছোটখাটো ভুলগুলো তারাই ঠিক করে দেন।

পাসপোর্ট অফিসের ভেতরে একটা ঘরে মানুষ গাদাগাদি করে দাঁড়িয়ে আছে। সেখানে একজনের হাতে পাসপোর্ট দেখে কথা বলা হয় তার সঙ্গে। ডেলিভারির নির্দিষ্ট তারিখে পাসপোর্ট পেয়েছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, একটা পাসপোর্টের জন্য তিনি এখানে তিন মাস ধরে ঘুরছেন। এত সময় লাগল কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার জন্ম  নিবন্ধন কার্ড ছিল না আর পাসপোর্ট ভেরিফিকেশনে একটু সমস্যা ছিল, তাই দেরি হল। কথাবার্তার একপর্যায়ে তিনি অভিযোগ করে বলেন, এখানে কর্মচারী থেকে প্রশাসন পর্যন্ত যারা আছেন সবাই দালাল। টাকা ছাড়া কোনো কাজ হয় না। 

পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা মিসেস কামরুন্নাহার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, টাকা ছাড়া পাসপোর্ট অফিসের কোনো কর্মকর্তা কথা পর্যন্ত বলতে চান না। পাসপোর্ট পেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এখানে এসেছি আমার স্বামীর পাসপোর্ট করার জন্য, কিন্তু এখন পড়েছি এক ভোগান্তিতে। 

বলেন, স্বামীর
নামের বানানে ভুল আছে এবং তা সংশোধন করার জন্য একজন কর্মকর্তা তার কাছে ৩০০০ টাকা দাবি করেছেন। তিনি বলেন, এভাবে কর্মকর্তারা যদি দালালি করেন তাহলে দালাল আর পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের মধ্যে পার্থক্য কী? 

পাসপোর্ট নিতে আসা সাজেদ নামের একজনের সঙ্গে কথা হয় অফিসের ভেতরে। তিনি বলেন, আজ পাসপোর্ট ডেলিভারির তারিখ থাকলেও অফিস থেকে কর্মকর্তারা বলেছেন আরও এক সপ্তাহ পরে আসতে।

ফরম পূরণে ভুল ছিল কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনলাইনে ফরম পূরণ করেছিলাম তখন সব কিছু ঠিক ছিল কিন্তু এখন কেন পাসপোর্ট পেতে এত দেরি হচ্ছে কিছুই বুঝতে
পারছি না।
পাসপোর্ট অফিসের গেট দিয়ে বের হওয়ার সময় কথা বলতে এগিয়ে আসেন মাসুদ নামের একজন। পাসপোর্ট করতে এসে কোনো রকম সমস্যায় পড়েছেন কিনা জানতে চাইলে জবাবে বলেন, সকাল ৮টায় তিনি কাগজপত্র জমা দেয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়েছেন অথচ তা জমা দিয়েছেন প্রায় বেলা ৩টায়। তিনি অভিযোগ করে বলেন, এখানে ফরম জমা নেয়ার জন্য ৭টি কাউন্টার  থাকলেও কাজ হচ্ছে মাত্র দুটি কাউন্টারে। বাকিগুলো অচল। আবার ছবি তোলার জন্য ৫টি কাউন্টার থাকলেও সেগুলোর সবকটি কাউন্টারে কাজ হচ্ছে না। 

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, যদি সব কাউন্টারে কাজ হতো আর প্রশাসন যদি কঠোরভাবে দালালদের দমন করত, তাহলে আমার মতো অনেককেই সকাল থেকে এখন পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হতো না।

এ ব্যাপারে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে গেলে কেউ কথা বলতে চান নি।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

বিশ্বকাপ ফুটবলে আইএস’এর জঙ্গি হামলার হুমকি

বিশ্বকাপ ফুটবলে আইএস’এর জঙ্গি হামলার হুমকি

সারাবিশ্বের ফুটবল পাগল দর্শকরা যখন গভীর আগ্রহে রাশিয়ায় সমবেত হচ্ছে বা বিভিন্ন দেশের দর্শক টেলিভিশন

বাজেট পাসের আগেই চালের দাম কেজি প্রতি ৫ টাকা বৃদ্ধি

বাজেট পাসের আগেই চালের দাম কেজি প্রতি ৫ টাকা বৃদ্ধি

আসছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে চাল আমদানির ওপর ২৮ শতাংশ শুল্ক পুনর্বহাল করা হয়েছে।

সিএমএইচে কেন বিশ্বাস নেই খালেদার : প্রশ্ন কাদেরের

সিএমএইচে কেন বিশ্বাস নেই খালেদার : প্রশ্ন কাদেরের

 কারাগারে অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকারের পক্ষ থেকে দ্বিতীয় দফায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে


খালেদা জিয়াকে ঈদ শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা

খালেদা জিয়াকে ঈদ শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা

 দলীয় প্রধান কারাগারে, আর তাই ঈদুল ফিতরের দিনে তাদের নেত্রীকে দেখতে ও শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে

হাসিনা যে সুযোগ পেয়েছেন, খালেদা কেন পাবেন না?

হাসিনা যে সুযোগ পেয়েছেন, খালেদা কেন পাবেন না?

 বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে পাঠাবে না সরকার। অথচ এক সময় শেখ হাসিনা

ভারতের নাক গলানোর অধিকার নেই : ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

ভারতের নাক গলানোর অধিকার নেই : ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, আমরা এমনিতেই দেশের লোকেরা মনে করি বিএনপি জামায়েত


জাতীয় ঈদগাহে প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টা

জাতীয় ঈদগাহে প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টা

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত সকাল

রিজার্ভ চুরির অর্থ উদ্ধারে আপস চায় না বাংলাদেশ ব্যাংক, জুলাইয়ে মামলা

রিজার্ভ চুরির অর্থ উদ্ধারে আপস চায় না বাংলাদেশ ব্যাংক, জুলাইয়ে মামলা

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক থেকে চুরি হওয়া বাংলাদেশের ডলার উদ্ধারে ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকিং করপোরেশনের

বনানীর সিদ্দিক মুন্সি হত্যা : আরেক হত্যাকারী গ্রেফতার

বনানীর সিদ্দিক মুন্সি হত্যা : আরেক হত্যাকারী গ্রেফতার

রাজধানীর বনানীতে বহুল আলোচিত রিক্রুইটিং এজেন্সির মালিক সিদ্দিক মুন্সি হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণকারী নূর আমিন ওরফে নূরাকে



আরো সংবাদ

সিলেট ইয়াবাসহ ২ যুবক গ্রেফতার

সিলেট ইয়াবাসহ ২ যুবক গ্রেফতার

০২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:৪৯






পাবনায় স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

পাবনায় স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:২১




মির্জাপুরে বাস-ট্রাক সংঘর্ষ, নিহত ২

মির্জাপুরে বাস-ট্রাক সংঘর্ষ, নিহত ২

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:৩২



ব্রেকিং নিউজ