বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার 21, February 2019 - ৯, ফাল্গুন, ১৪২৫ বাংলা

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারে অসুস্থ প্রতিযোগিতা

১৮ অগাস্ট, ২০১৮ ১৮:০৮:০৪

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারে চলছে লাভ-ক্ষতির হিসাব। পাশাপাশি অসুস্থ প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতা থেকে উত্তরণে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ আশ্বাস দিয়েছেন, বাংলাদেশ থেকে যেসব অনুমোদিত এজেন্ট বিদেশে কর্মী পাঠায়, শিগগিরই তাদের সবাইকে মালয়েশিয়া গমনেচ্ছু শ্রমিকদের আবেদনপত্র প্রক্রিয়াকরণের অনুমোদন দেয়া হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসবে মালয়েশিয়া সরকার। দেশটির প্রধানমন্ত্রী মনে করছেন, সবাইকে এই সুযোগ দেয়ার মধ্য দিয়ে এজেন্সিগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতামূলক অবস্থা সৃষ্টি হবে, যা কর্মীদের জন্য ইতিবাচক হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১২ সালে দুই দেশ শুধু সরকারি মাধ্যমে জি-টু-জি পদ্ধতিতে মালয়েশিয়ায় লোক পাঠাতে চুক্তি সই করে। ২০১৬ সালের তা পরিমার্জন করে ১০টি বেসরকারি রিক্রুটিং এজেন্সিকে জি-টু-জি প্লাসের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

 

 

২০১৬ সালের শেষদিক থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ শ্রমিক মালয়েশিয়া গেছেন। এর মধ্যে চলতি বছরের জুলাই মাস পর্যন্ত ১ লাখ ৯ হাজার ৫৬২ জন শ্রমিক পাঠায় বাংলাদেশ।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার পার্লামেন্ট ভবনে বিদেশি কর্মীদের ব্যবস্থাপনা শীর্ষক বৈঠকে মাহাথির মোহাম্মদ জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশি কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাদের কথা হয়েছে। মালয়েশিয়াকে জানানো হয়েছে, মাত্র ১০টি এজেন্সি একচেটিয়া কর্মী পাঠানোর সুযোগ পায় বলে মালয়েশিয়া গমনেচ্ছু বাংলাদেশি কর্মীদের জনপ্রতি ২০ হাজার মালয়েশীয় রিঙ্গিত পর্যন্ত দিতে হয় এজেন্সিগুলোকে।

এ কারণেই মালয়েশিয়ার সরকার সব এজেন্ট পর্যন্ত এই সুযোগ বিস্তৃত করতে চায় যেন সেখানে প্রতিযোগিতা থাকে।

মাহাথির আরও বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে দেশি-বিদেশি কর্মীদের বিভিন্ন বিষয় দেখভালের জন্য একটি স্বাধীন কমিশন গঠন করতে চান তিনি। যে দেশ থেকেই কর্মী নিয়োগ দেয়া হোক না কেন, সবাইকে ওই স্বাধীন কমিশনের একক ব্যবস্থাপনার আওতায় আনতে চান তিনি।

মাহাথির জানান, একজন উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা ওই কমিশনের নেতৃত্বে থাকবেন। প্রাতিষ্ঠানিকভাবে কর্মীদের নীতি ও ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বিষয়গুলো দেখাশোনা করা হবে। শ্রমবাজার সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য ও বিশ্লেষণের প্রতিও নজর রাখা হবে।

মাহাথিরের এই সিদ্ধান্তে ফিলিপাইনসহ কয়েকটি দেশ নড়েচড়ে বসেছে। তাদের প্রশ্ন, যারা কোনও তৃতীয় পক্ষের সহযোগিতা ছাড়া সরাসরি জনশক্তি রফতানি করে তাদের কীভাবে স্বাধীন কমিশনের আওতায় আনা হবে এবং একক ব্যবস্থাপনায় তারা কীভাবে কাজ করবে?

এদিকে মালয়েশিয়া সরকারের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সি (বায়রা) এবং অভিবাসন খাতের বিশেষজ্ঞরা। তবে তাদের আশঙ্কা রয়েছে নিরাপদ অভিবাসনের নিশ্চয়তা নিয়ে। মালয়েশিয়ায় অভিবাসী কর্মীরা যেন শোষণের শিকার না হয় সেদিকে দেশটির সরকারকে নজরদারি করার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

অভিবাসন বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ১০ এজেন্সির সিন্ডিকেট থেকে বেরিয়ে আসা গেলে অভিবাসন খরচ যেমন কমবে তেমনি প্রতিযোগিতামূলক একটি বাজার তৈরি হবে।

Maleshia-s

তারা আরও বলছেন, বেশি পরিমাণে শ্রমিক পাঠানোর চেয়ে নিরাপদ অভিবাসনকে গুরুত্ব দেয়া জরুরি।

অনুন্ধানে জানা গেছে, শ্রম রফতানির ক্ষেত্রে মালয়েশিয়ার জি-টু-জি প্লাস পদ্ধতির কারণে নেপাল নড়েচড়ে বসেছে। মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রফতানি বন্ধ রেখেছে দেশটি। নেপাল সরকার বর্তমান ব্যবস্থায় মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রফতানি প্রক্রিয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করে।

নেপালের লেবার অ্যাটাশে সূত্রে জানা গেছে, সে দেশের সরকার মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রফতানিতে অনেক অনিয়ম খুঁজে পায়। নেপাল সরকারের পক্ষ থেকে প্রশ্ন তোলা হয়েছে, বেসরকারি কোম্পানির মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু রেখে একচেটিয়া ব্যবসা ধরে রাখতে চাচ্ছে মালয়েশিয়া। ফলে নেপাল সরকার মালয়েশিয়ায় জনশক্তি রফতানি বন্ধ ঘোষণা করার পর বেকায়দায় পড়ে যায় মালয়েশিয়া সরকার।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

ধামরাইয়ে খোলা আকাশের নীচে শিক্ষার্থীদের পাঠদান

ধামরাইয়ে খোলা আকাশের নীচে শিক্ষার্থীদের পাঠদান

ধামরাই প্রতিনিধি : ধামরাইয়ে একটি অবৈধ সিসা তৈরীর কারখানার আগুনে পুড়ে গেছে কারখানা লাগোয়া ধামরাই

অ্যাক্রেডিটেশন সনদ পেল ১৫ প্রতিষ্ঠান

অ্যাক্রেডিটেশন সনদ পেল ১৫ প্রতিষ্ঠান

 টেস্টিং ল্যাবরেটরি ও ইন্সপেকশন প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ অ্যাক্রেডিটেশন বোর্ডের (বিএবি) সনদ পেল দেশীয় ও বহুজাতিক ১৫টি

আশরাফকে নিয়ে সংসদে আপ্লুত শেখ হাসিনা

আশরাফকে নিয়ে সংসদে আপ্লুত শেখ হাসিনা

জাতীয় সংসদে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে নিয়ে বক্তব্য দিতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী শেখ


এমপিপুত্র রনির যাবজ্জীবন

এমপিপুত্র রনির যাবজ্জীবন

বহুল আলোচিত রাজধানীর ইস্কাটনে জোড়া খুনের মামলার একমাত্র আসামি আওয়ামী লীগের নেত্রী ও সংরক্ষিত নারী

হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনায় নতুন আইন আসছে

হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনায় নতুন আইন আসছে

হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনাকে নির্বিঘ্ন ও সুষ্ঠু করতে একটি আইন প্রণয়নের প্রক্রিয়া চলছে। আইনের খসড়ার

রাস্তায় পড়ে থাকল দুটি স্কুলব্যাগ আর ছিন্নভিন্ন শরীর

রাস্তায় পড়ে থাকল দুটি স্কুলব্যাগ আর ছিন্নভিন্ন শরীর

দু’টি স্কুলব্যাগ। একটি লাল, আরেকটি সবুজ আর কালো মেশানো। পাশে শুয়ে আছে দুই শিক্ষার্থী, সম্পর্কে


শপথ নেবেন গণফোরামের দুই প্রার্থী

শপথ নেবেন গণফোরামের দুই প্রার্থী

একাদশ জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হওয়া গণফোরাম সমর্থিত ঐক্যফ্রন্টের দুই প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ

সরে যাচ্ছেন ডিএনসিসির অনেক মেয়র প্রার্থী

সরে যাচ্ছেন ডিএনসিসির অনেক মেয়র প্রার্থী

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য রোববার দুপুর পর্যন্ত ২১ জন

এসএসসি পরীক্ষা আমাদের জন্যও একটা পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী

এসএসসি পরীক্ষা আমাদের জন্যও একটা পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : আগামী ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া এসএসসি পরীক্ষাকে নিজেদের জন্যও একটি পরীক্ষা



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ