বাংলাদেশ শুক্রবার 16, November 2018 - ২, অগ্রাহায়ণ, ১৪২৫ বাংলা

ফেইসবুক, ইউটিউব যেভাবে নজরদারি করবে সরকার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশিত ২২ অক্টোবর, ২০১৮ ১৬:৩৩:৩৩

 ফেইসবুক বা ইউটিউবের মত সামাজিক মাধ্যমে প্রচারিত যে কোন কনটেন্ট যদি সরকারের কাছে দেশের জন্য ক্ষতিকর বলে মনে হয়, তাহলে সরকার চাইলেই সেগুলো প্রতিরোধ করতে বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে।

এ জন্য সরকারের পক্ষ থেকে কিছু প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। খবর বিবিসি’র।

এসব প্রযুক্তির মধ্যে হার্ডওয়্যার বা সফটওয়্যার দুটোই থাকতে পারে এবং খুব শিগগিরই এগুলো ব্যবহারের মাধ্যমে নজরদারি করা হবে বলে জানান তিনি।

কিভাবে নজরদারি করা হবে?
এসব প্রযুক্তির মাধ্যমে কিভাবে ফেইসবুক কিংবা ইউটিউবের কনটেন্টের ওপর নজর রাখা যায়? এ বিষয়ে বিবিসি বাংলা জানতে চেয়েছিল আয়ারল্যান্ডে সোশাল মিডিয়া গবেষক এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ইউনাইটেড হেলথ গ্রুপের তথ্য প্রযুক্তিবিদ ড. নাসিম মাহমুদের কাছে।

তিনি জানান, বাংলাদেশ সরকার চাইলে দুইভাবে এসব কন্টেন্টের উপর নজর রাখতে পারবে। প্রথমত, ফেইসবুক বা গুগলের মতো বড় প্রতিষ্ঠানের কাছে সরকার তথ্য চাওয়ার মাধ্যমে। অনেক দেশই তাদের প্রয়োজনে ফেইসবুক বা গুগলের কাছে তথ্য চেয়ে থাকে।

দ্বিতীয়ত, পরোক্ষভাবে নজরদারি করা, যেমন বিশেষজ্ঞ বা পারদর্শী কারও মাধ্যমে পুরো ফেইসবুক নেটওয়ার্ককে মনিটর করা। এ ধরণের কাজের জন্য আলাদা কোম্পানি আছে। যারা আপনার হয়ে ফেইসবুক বা গুগলের ওপর নজরদারি করতে পারে।

যদি ক্ষতিকর কোন শব্দ বা মন্তব্য সামাজিক মাধ্যমে চলে যায় তখন এই কোম্পানিগুলো আপনাকে সে বিষয়ে দ্রুত জানাতে পারবে।

তবে তথ্য প্রযুক্তিমন্ত্রী যেটা বলছেন, সরকার কিছু প্রযুক্তি আনতে যাচ্ছে, যেটা থেকে জানা যাবে যে, কোথায়, কী ধরণের ভিডিও আপলোড হয়েছে, কারা এসবের পেছনে জড়িত।

সুনির্দিষ্ট ভাবে এই ধরণের নজরদারি করার কোন প্রযুক্তি নেই বলে জানান ড. নাসিম মাহমুদ। তার মতে, এ ব্যাপারে পারদর্শী কাউকে নিয়োগ দেয়া যায়, যার কাজ হবে প্রতিনিয়ত ওই মাধ্যমগুলোকে মনিটর করা।

তবে মানুষের কাজটি এখন একটি সফটওয়্যার দিয়েই করা সম্ভব।

সফটওয়্যারে যদি নির্দিষ্ট কোন শব্দ বাছাই করে দেয়া হয়, তাহলে কেউ সেই শব্দ প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে সফটওয়্যারটি বিস্তারিত তথ্যসহ আপনাকে একটা ইমেইল পাঠিয়ে দেবে।

এছাড়া সংশ্লিষ্ট শব্দের সাথে নির্দিষ্ট কোন ব্যক্তির নাম এসেছে কিনা এবং সেটা ইতিবাচক অথবা নেতিবাচক কিনা এ ধরণের কাজগুলো সেই সফটওয়্যারের মাধ্যমে করা যায়।

কেউ যদি অন্য কোন দেশে বসেও এমন কাজ করে থাকে তাহলেও সেই সফটওয়্যারটি দিয়ে ওই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের পরিচয় খুঁজে পাওয়া সম্ভব হবে।

অনেকেই তাদের পেশাগত প্রয়োজনে এই সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকেন।

বিতর্কিত তথ্যগুলো কি মুছে দেয়া যাবে?
ওই সফটওয়্যার ক্ষতিকর কন্টেন্ট সনাক্ত করতে পারলেও সেগুলো আর মুছে দিতে পারে না। ড. নাসিম বলেন, ‘যেটা একবার পোস্ট করা হয়ে যায় সেটা চাইলেই ডিলিট করা সম্ভব না।’

‘সেক্ষেত্রে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশ সরকার যেটা করতে পারেন সেটা হল, তারা সে ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য চাইতে পারেন।’

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবছরই ফেইসবুকের কাছে তাদের ব্যবহারকারীদের তালিকা দিয়ে বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়। এ বছর হয়তো একশ মানুষের তথ্য চেয়েছে, সামনের বছরে হয়তো এক হাজার মানুষের তথ্য চাইতে পারবে।

মত প্রকাশের স্বাধীনতা থাকবে?
এখানে কি তাহলে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করা বা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা থাকছে?

বিবিসির এমন প্রশ্নের জবাবে ড. নাসিম বলেন, ‘এটি ব্যাপকভাবে মানুষের মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে খর্ব করবে।’

‘আপনি যদি আগে থেকেই জানেন যে আপনি মুখ খুললে, আপনাকে খুঁজে বের করে জিজ্ঞেসাবাদ করা সম্ভব। তাহলে এই মুখ খোলার হার অনেক কমে যাবে।’

ড. নাসিমের মতে, যারা মূলধারার গণমাধ্যমের কাছে তাদের মনের কথাগুলো বলার সুযোগ পান না তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের দ্বারস্থ হন।

এখন যদি এই সামাজিক মাধ্যমের ওপর সরকার রীতিমত ঘোষণা দিয়ে সফটওয়্যারের সাহায্যে, বিশেষায়িত হার্ডওয়্যার দিয়ে বা শক্তিশালী কোন সার্ভার ব্যবহার করে সবার নেটওয়ার্কে প্রবেশের চেষ্টা করে তাহলে সাধারণ মানুষ কথা বলা থেকে বিরত থাকবে বলে জানান ড. নাসিম মাহমুদ।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

অর্থমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে আপত্তি ইসির

অর্থমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে আপত্তি ইসির

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর প্রথমবারের মতো সরকারের শীর্ষ পদে থাকা ব্যক্তিদের অনুষ্ঠানে

স্বরূপে ফিরেছে বিএনপি : প্রধানমন্ত্রী

স্বরূপে ফিরেছে বিএনপি : প্রধানমন্ত্রী

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যখন বাংলাদেশের মানুষ নির্বাচনে উৎসবমুখর, যখন সবাই

প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ইসিকে সহযোগিতার নির্দেশনা

প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ইসিকে সহযোগিতার নির্দেশনা

প্রশাসনের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশনকে


যে কারণে এবার বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ভারত নীরব

যে কারণে এবার বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ভারত নীরব

 ২০১৪-র ৫ জানুয়ারির বিতর্কিত নির্বাচনকে যে দেশটি আগাগোড়া জোরালো সমর্থন জানিয়ে এসেছিল, সেটি ছিল ভারত।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন স্থগিত

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন স্থগিত

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলের রাখাইনে ফিরে না যাওয়ার দাবিতে কক্সবাজারে শরণার্থী শিবিরে বিক্ষোভ করেছে হাজার হাজার রোহিঙ্গা।

ভোট আর পেছাচ্ছে না

ভোট আর পেছাচ্ছে না

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আর পেছাচ্ছে না। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন তিন সপ্তাহ পেছানোর দাবি করলেও


বিএনপি নির্বাচনে নাও আসতে পারে: এরশাদ

বিএনপি নির্বাচনে নাও আসতে পারে: এরশাদ

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বিএনপির অফিসের সামনে সংঘটিত বিশৃঙ্খলায়

সরকারি হলো আরও ১৬ বিদ্যালয়

সরকারি হলো আরও ১৬ বিদ্যালয়

বেসরকারি আরও ১৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও

তোষাখানা জাদুঘর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

তোষাখানা জাদুঘর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

নবনির্মিত রাষ্ট্রীয় তোষাখানা জাদুঘর উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর বিজয় সরণির



আরো সংবাদ







ভোট আর পেছাচ্ছে না

ভোট আর পেছাচ্ছে না

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫০







ব্রেকিং নিউজ

আটকের পর ছাড়া পেলেন বেবী নাজনীন

আটকের পর ছাড়া পেলেন বেবী নাজনীন

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ২১:১১


গাজীপুরে মিলল ৯ জনের লাশ

গাজীপুরে মিলল ৯ জনের লাশ

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ২১:০৬






রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন স্থগিত

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন স্থগিত

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৪

ভোট আর পেছাচ্ছে না

ভোট আর পেছাচ্ছে না

১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫০