বাংলাদেশ বুধবার 19, December 2018 - ৪, পৌষ, ১৪২৫ বাংলা

যুক্তরাষ্ট্রও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিরোধী

ফুলকি ডেস্ক | প্রকাশিত ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ ১৫:১৩:৫০

আগামীকাল থেকেই শুরু হচ্ছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া। ইতোমধ্যেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের প্রস্তুতি নিয়েছে মিয়ানমার। দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুই হাজার রোহিঙ্গা মুসলিমের প্রথম দলটির প্রত্যাবাসনে তারা প্রস্তুতি নিয়েছে।

গত মাসে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে হওয়া একটি চুক্তির আওতায় ৫ হাজার রোহিঙ্গার প্রত্যাবাসন শুরু হবে।আগামীকাল থেকে রোহিঙ্গাদের প্রথম গ্রুপটিকে ফেরত নেয়া শুরু করবে মিয়ানমার।

তবে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। এবার এই প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার বিরোধিতা করেছে যুক্তরাষ্ট্রও। কয়েক হাজার রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে জাতিসংঘ এবং যুক্তরাষ্ট্রের ঊর্ধ্বতন মানবাধিকার কর্মকর্তারা একে অপরিপক্ক পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করেছেন।

রোববার এক বিবৃতিতে মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসনমন্ত্রী এক ঘোষণায় জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শুরু হবে। দু’সপ্তাহ ধরে প্রতিদিন ১৫০ জন রোহিঙ্গাকে দেশে ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার।

গত বছরের নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছিল মিয়ানমার। কিন্তু এ প্রক্রিয়া শুরু হতেই এক বছরের মতো সময় লেগে গেছে।

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, রাখাইনে সেনাবাহিনী এবং স্থানীয় বৌদ্ধরা তাদের বাড়ি-ঘর আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে, নির্বিচারে গুলি করে বহু মানুষকে হত্যা করা হয়েছে, নারীদের ধর্ষণ করা হয়েছে।

জাতিসংঘ ওই অঞ্চলে তদন্তের পর জানিয়েছে, সেখানে গণহত্যা এবং জাতিগত নিধন চালিয়েছে সেনাবাহিনী। কিন্তু মিয়ানমারের তরফ থেকে এমন অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

মিয়ানমার ও বাংলাদেশের যৌথ প্রচেষ্টায় ৮ হাজার ৩২ জন রোহিঙ্গার মধ্যে ২ হাজার ২৬০ জনের প্রথম দলটিকে প্রত্যাবাসনের জন্য বাছাই করা হয়েছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাই কশিশনার মিশেল ব্যাচলেট উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, বাংলাদেশ সরকারের উচিত প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বন্ধ করা। রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়াটা নিরাপদ নয় কারণ, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিরোধিতা করে বিক্ষোভ করেছে মিয়ানমারের বৌদ্ধ সম্প্রদায়।

রোহিঙ্গারা জানিয়েছে, যেখান থেকে তারা পালিয়ে এসেছে সেখানে আর ফিরে যাবে না। এদিকে, বাংলাদেশের তরফ থেকে বলা হয়েছে, তারা কাউকে জোর করে ফেরত পাঠাবে না। ২০ জনেরও বেশি রোহিঙ্গা উত্তরাঞ্চলীয় রাখাইনে ফিরে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। গত বছরের আগস্টে রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনী অভিযান শুরুর পর সেখান থেকে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রতি সমর্থন জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। রোহিঙ্গাদের ফিরে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে। পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র জানিয়েছেন, আমরা দু’দেশের সরকারকেই আমাদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছি।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনকে উৎসাহিত করে যুক্তরাষ্ট্র

অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনকে উৎসাহিত করে যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সব সময় সুষ্ঠু, অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক শান্তিপূর্ণ

যা আছে আ. লীগের ইশতেহারে

যা আছে আ. লীগের ইশতেহারে

‘সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ’ শীর্ষক ইশতেহারে গ্রামভিত্তিক উন্নয়ন তথা গ্রামে আধুনিক সুবিধার উপস্থিতি, শিল্প উন্নয়ন, স্থানীয়

যা আছে বিএনপির ইশতেহারে

যা আছে বিএনপির ইশতেহারে

ক্ষমতায় গেলে কারো ওপরই কোনো প্রকার প্রতিশোধ নেয়া হবে না। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, অফিসিয়াল সিক্রেটস


ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমা চাই : শেখ হাসিনা

ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমা চাই : শেখ হাসিনা

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা কথায় না, কাজে বিশ্বাস করি। গত

ড. কামাল কখনও দেশের জন্য কাজ করেননি : আইনমন্ত্রী

ড. কামাল কখনও দেশের জন্য কাজ করেননি : আইনমন্ত্রী

ড. কামাল হোসেনের আসল রূপ বেরিয়ে এসেছে, তিনি কখনও দেশের জন্য কোনো কাজ করেননি বলে

নির্বাচনে লেভেল প্লেইং ফিল্ড নেই : মাহবুব তালুকদার

নির্বাচনে লেভেল প্লেইং ফিল্ড নেই : মাহবুব তালুকদার

নির্বাচন কমিশন বৈঠকে বিভিন্ন সময় নোট অব ডিসেন্ট (ভিন্নমত) দিয়ে আলোচনায় আসা কমিশনার মাহবুব তালুকদার


দেশ ভয়াবহ অবস্থার দিকে চলে যাবে- ড. কামাল হোসেন

দেশ ভয়াবহ অবস্থার দিকে চলে যাবে- ড. কামাল হোসেন

নির্বাচনে নজীরবিহীন গ্রেপ্তার ও বিরোধী নেতাকর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড.

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশা মার্কিন রাষ্ট্রদূতের

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের আশা মার্কিন রাষ্ট্রদূতের

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন

যা আছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে

যা আছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ইশতেহারে

চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর বিএনপিসহ কয়েকটি দল নিয়ে গঠিত হয় ঐক্যফ্রন্ট। দুই দফা তারিখ পেছানোর



আরো সংবাদ



চীনে আইফোন বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

চীনে আইফোন বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা

১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১১:০৫











ব্রেকিং নিউজ

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন লতিফ সিদ্দিকী

অসুস্থ হয়ে পড়েছেন লতিফ সিদ্দিকী

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:৫০







যা আছে আ. লীগের ইশতেহারে

যা আছে আ. লীগের ইশতেহারে

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৫:১৭



রাশিয়া-চীনকে আরও কাছে চায় আ.লীগ

রাশিয়া-চীনকে আরও কাছে চায় আ.লীগ

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৫:০৫

যা আছে বিএনপির ইশতেহারে

যা আছে বিএনপির ইশতেহারে

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৫:০২