বাংলাদেশ বুধবার 21, November 2018 - ৭, অগ্রাহায়ণ, ১৪২৫ বাংলা

থানার ওসির দায়িত্ব পাবেন এএসপি

ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশিত ৩০ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৩:৩০

 

 সারা দেশের থানাগুলোয় ওসি পদে সহকারী পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট (এএসপি) নিয়োগের সিদ্ধান্তের ঘটনা আবারো নতুন করে আলোচনায় এসেছে। পুলিশ হেডকোয়ার্র্টার্সের এমন সিদ্ধান্তে মাঠ পুলিশ পর্যায়ে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশন বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু করেছে। ওসির aদায়িত্বে এএসপি নিয়োগ অযৌক্তিক এমন দাবি নিয়ে এসোসিয়েশনের কর্মকর্তারা ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশের (আইজিপি) সঙ্গে দেখা করে তাদের যৌক্তিকতা তুলে ধরবেন বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। গত শনিবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনের পলওয়েল মার্কেটে অবস্থিত এসোসিয়েশনের কার্যালয়ে মাসিক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। এসোসিয়েশনের সভায় এ ধরনের সিদ্ধান্তের বিষয়টি পুলিশ কর্মকর্তারা বিভিন্ন সূত্রে অবগত হয়েছেন বলে জানা গেছে। গত ২০ অক্টোবর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের প্রেক্ষিতে পুলিশ সদর দপ্তর এ সংক্রান্ত এক নির্দেশনা জারী করলে পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশনের সভায় বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব পায়।

বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশনের সভাপতি রাজধানীর গুলশান থানার ওসি মো. সিরাজুল ইসলাম  রোববার বলেছেন, গত শনিবারের সভাটি ছিল তাদের মাসিক নিয়মিত সভার অংশ। সভায় পুলিশের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে আলোচনা হয়। এরমধ্যে থানায় ওসির দায়িত্ব এএসপিদের দেয়ার বিষয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের পুরনো আদেশ নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনা শেষে এ নিয়ে আইজিপির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে থানায় ইন্সপেক্টরের গুরুত্ব তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশনে এএসআই থেকে ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার প্রায় ৫ হাজার সদস্য রয়েছেন।

বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক পুরান ঢাকার চকবাজার থানার ওসি শামীমুর রশীদ তালুকদার বলেন, গত শনিবারের সভায় পুলিশ সদস্যদের অনেক সমস্যার পাশাপাশি থানার ওসি পদে এএসপি নিয়োগের আদেশের বিষয়টি গুরুত্ব পায়। এসোসিয়েশনের কর্মকর্তারা এ নিয়ে আইজিপির সঙ্গে সাক্ষাতের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে এখনো দিন তারিখ ঠিক হয়নি।  

এ প্রসঙ্গে যোগাযোগ করা হলে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের ডিআইজি (মিডিয়া এন্ড প্লানিং) এ কে এম শহিদুর রহমান বলেছেন, বিষয়টি তার জানা নেই।

পুলিশের ইন্সপেক্টর ও সাব-ইন্সপেক্টর পদমর্যাদার একাধিক কর্মকর্তা জানান, হঠাৎ করে আবার থানার ওসির দায়িত্ব এএসপিদের দেয়ার শোরগোল শুরু হয়েছে। এতে পুলিশ বাহিনীর চাকরির শুরুতে কনস্টেবল থেকে সাব-ইন্সপেক্টর পর্যন্ত যেসব সদস্য ইন্সপেক্টর হওয়ার স্বপ্ন দেখেন তারা কষ্ট পাবে। ইন্সপেক্টর হলে তারা থানার ওসির দায়িত্ব পাবেন এভাবে নিজেদের তৈরি করেন। স্বপ্ন দেখেন থানার ওসি মানে বড়কর্তা। এ অবস্থায় ওসির দায়িত্ব এএসপিদের দেয়া হলে মাঠ পুলিশের সব স্বপ্ন ভেঙে যাবে।

ঢাকা রেঞ্জের একজন ইন্সপেক্টর বলেন, ইন্সপেক্টররা মাঠে কাজ করে মামলা ও আইনি প্রক্রিয়া আয়ত্ত করে থানার দায়িত্ব পায়। এ ক্ষেত্রে এএসপিদের অভিজ্ঞতার ঘাটতি রয়েছে। আর একজন ইন্সপেক্টর মাঠ থেকে উঠে আসায় তারা কনস্টেবল, এএসআই ও এসআইদের মনের কথা বুঝতে পারে। তবে এ ক্ষেত্রে এএসপিদের সঙ্গে তাদের দূরত্ব রয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনের একটি থানার ওসি বলেছেন, বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আনা জরুরি। থানায় ওসি হিসেবে ইন্সপেক্টরের বদলে এএসপিদের দায়িত্ব দেয়া হলে বাহিনীর চেইন অব কমান্ডে সমস্যা হবে। এতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হতে পারে।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের থানায় দুজন করে ইন্সপেক্টর নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এদের একজন ওসি (অপারেশন) অন্যজন ওসি (তদন্ত)। একই বছরের ৫ আগস্ট পুলিশ বাহিনীর নীতিনির্ধারণী গ্রুপের (পলিসি গ্রুপ) এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, দেশের সব থানায় ওসি পদে পরিদর্শকদের বদলে সহকারী পুলিশ সুপারদের (এএসপি) নিয়োগ করা হবে। প্রথম পর্যায়ে ঢাকা মহানগরের সব থানায় ও পরবর্তী সময়ে অন্য মহানগরে এ ব্যবস্থা কার্যকর করা হবে। এরপর জেলাগুলোতেও এএসপিদের নিয়োগ করা হবে। এ জন্য ঢাকা মহানগরের সব থানায় ওসি পদে এএসপিদের নিয়োগ দেয়ার জন্য মহানগর পুলিশ কমিশনারকে নির্দেশও দেয়া হয়। তবে পুলিশের নীতিনির্ধারণী গ্রুপে এ নিয়ে আলোচনা হলেও বাহিনীর ভেতরে বিষয়টি নিয়ে তখনই নানা প্রশ্ন ওঠে। এ নিয়ে ১১ আগস্ট কর্মকর্তারা বৈঠকে করেন।

এদিকে ১১ আগস্ট বুধবার পুলিশ সদর দপ্তরে পুলিশের সে সময়ের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) নূর মোহাম্মদের সঙ্গে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ওই বৈঠকে প্রতিটি থানায় দুজন করে পরিদর্শক নিয়োগ শেষ হওয়ার পর ওসির দায়িত্ব এএসপিদের দেয়ার সিদ্ধান্ত হবে বলে সবাই একমত হন। তখন নূর মোহাম্মদ বলেন, থানাগুলোতে ওসি পদে এএসপি নিয়োগের বিষয়টি আপাতত কার্যকর হচ্ছে না। বিষয়টি পরে কার্যকর করা হবে। এত দিন ওই আদেশ ঝুলে থাকলেও নতুন করে নির্দেশনা জারী করা আলোচনায় এসেছে পুরনো প্রসঙ্গ। এতে প্রথম পর্যায়ে ঢাকা মেট্রোপলিটনের ৪৯ থানা, ঢাকা রেঞ্জে ৩০ থানা, ময়মনসিংহ রেঞ্জে ৩০ থানা ও রাজশাহী এবং খুলনা রেঞ্জের ৩০-৩৫ থানায় ইন্সপেক্টরদের বদলে এএসপিদের দায়িত্ব দেয়ার কথা রয়েছে। এরইমধ্যে অনেক থানায় এসএসপিরা ওসির দায়িত্ব পালন শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।

 

 

বার পঠিত

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

হেলমেটধারী সেই যুবকসহ ৬ জন পাঁচ দিনের রিমান্ডে

হেলমেটধারী সেই যুবকসহ ৬ জন পাঁচ দিনের রিমান্ডে

রাজধানীর নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনায় হেলমেটধারী সেই যুবকসহ গ্রেফতার ছয় জনের পাঁচ

নারায়ণগঞ্জে চলবে ইলেকট্রনিক ট্রেন

নারায়ণগঞ্জে চলবে ইলেকট্রনিক ট্রেন

বিশ্বের উন্নত দেশের মতো নারায়ণগঞ্জেও চলবে ইলেকট্রনিক ট্রেন। প্রতিদিন এ ট্রেনে গড়ে যাতায়াত করবে প্রায়

ইভিএম নিয়ে সক্রিয় হচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট

ইভিএম নিয়ে সক্রিয় হচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার বন্ধে আরও কিছু কর্মসূচি নিতে যাচ্ছে


উদ্দেশ্য ছিল পুলিশের অ্যাকশনের ভিডিও প্রচার করে রাজনৈতিক ফায়দা

উদ্দেশ্য ছিল পুলিশের অ্যাকশনের ভিডিও প্রচার করে রাজনৈতিক ফায়দা

রাজধানীর পল্টনে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি সমর্থকদের সংঘর্ষের ঘটনার ভিডিও ও ছবি থেকে সনাক্ত করে ছয়জনকে

পর্যবেক্ষকরা গলায় কার্ড ঝুলিয়ে দাঁড়িয়ে থাকবেন, ব্যত্যয় হলে কঠোর ব্যবস্থা: ইসির সচিব

পর্যবেক্ষকরা গলায় কার্ড ঝুলিয়ে দাঁড়িয়ে থাকবেন, ব্যত্যয় হলে কঠোর ব্যবস্থা: ইসির সচিব

 নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেছেন, নির্বাচনী নীতিমালা অনুসরণ করে দায়িত্ব পালনে সতর্ক থাকতে হবে

ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও স্কাইপ বন্ধ করেও ঠেকানো গেল না তারেক রহমানকে

ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও স্কাইপ বন্ধ করেও ঠেকানো গেল না তারেক রহমানকে

 বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেও ঠেকানো গেল না তারেক


স্কাইপ বন্ধ করা হয়নি : বিটিআরসি চেয়ারম্যান

স্কাইপ বন্ধ করা হয়নি : বিটিআরসি চেয়ারম্যান

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেছেন, বিটিআরসির পক্ষ থেকে স্কাইপ বন্ধ করা

ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে আমাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো জানিয়েছি: ড. কামাল

ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে আমাদের উদ্বেগের বিষয়গুলো জানিয়েছি: ড. কামাল

 জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ‘ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে জানানো হয়েছে, ঐক্যফ্রন্ট

বিএনপির গুলশানের কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন, বিএনপি বলছে পরিকল্পিত

বিএনপির গুলশানের কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন, বিএনপি বলছে পরিকল্পিত

 বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ