বাংলাদেশ সোমবার 18, June 2018 - ৪, আষাঢ়, ১৪২৫ বাংলা

northbangla 24

বাবুল অাক্তার নিজেই চাচাত ভাই ও সোর্সকে দিয়ে স্ত্রী হত্যার পরিকল্পনা করেন!

২৫ জুন, ২০১৬ ১৬:৪১:০৮

ঢাকা: স্ত্রী মাহমুদা খানম ওরফে মিতু আক্তারকে খুনের নির্দেশ দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার। খুনের পরিকল্পনার সঙ্গে তার এক চাচাতো ভাই সাইফুল জড়িত থাকার কথাও জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন পুলিশের এই উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানিয়েছেন, চট্টগ্রাম নগরীর দামপাড়া এম এম আলী রোডের এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে মিতুর সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে বাবুল আক্তার ‍জানতেন। তবে তার কাছে নিশ্চিত কোন প্রমাণ ছিলনা। জাতিসংঘ মিশনে কাজ করার সময় বাবুল আক্তার স্ত্রীর গতিবিধি ও কর্মকাণ্ড অনুসরণে সোর্স নিয়োগ করেন। সোর্স মারফত নিশ্চিত তথ্যপ্রমাণ পাওয়ার পর বাবুল আক্তার স্ত্রীকে খুনের সিদ্ধান্ত নেন। দুজন সোর্সসহ চারজনের মাধ্যমে বাবুল আক্তার এই হত্যাকাণ্ড সম্পন্ন করান।

পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।  তবে পুলিশের কোন কর্মকর্তা সরাসরি এ বিষয়ে মুখ খুলছেন না।

বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করা সিএমপি কমিশনার মো. ইকবাল বাহার সাংবাদিকদের বলেছেন, জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য যাচাই বাছাই ছাড়া নিশ্চিতভাবে বলা সম্ভব নয়। তবে দু’য়েকদিনের মধ্যে সবকিছু পরিস্কার হবে।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার থেকে পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু আক্তার হত্যা মামলার তদন্তের মোড় ঘুরে যায়। জঙ্গি, সোনা চোরাচালানি, ইয়াবা ব্যবসায়ীদের পর সন্দেহের তীর ঘুরে যায় খোদ বাবুল আক্তারের দিকেই।  

শুক্রবার (২৪ জুন) গভীর রাতে শ্বশুরের বাসা থেকে বাবুল আক্তারকে পুলিশ পরিচয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তুলে নিয়ে যাওয়ার পর সন্দেহ আরও জোরালো হয়।
 
তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার (দক্ষিণ) মো. কামরুজ্জামান জানিয়েছেন, তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না।
 
নগর পুলিশের দুজন শীর্ষ কর্মকর্তা এবং তদন্ত সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহে মিতু হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়া চারজনের প্রত্যেককে আটক করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। আটক চারজনের মধ্যে দুজন বাবুল আক্তারের সোর্স।
 
আটকের পর চারজনের আলাদা আলাদা করে জবানবন্দিও নিয়েছে।  এতে তারা হত্যার দায় স্বীকার করেছে।  এছাড়া খুনের নির্দেশদাতা নিয়ে চাঞ্চল্যকর কিছু তথ্যও তারা প্রকাশ করেছে।  মূলত এরপরই পুলিশ বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে।

শুক্রবার রাজধানীতে ২৪ তম বিসিএস’র মাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া পুলিশ কর্মকর্তাদের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ইফতার মাহফিলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আইজিপি ছিলেন।  সেখানে বাবুল আক্তারও গিয়েছিলেন।  ইফতার মাহফিলেই আইজিপি বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে ইঙ্গিত দেন।  
এর আগে আটক হওয়া চারজনের জবানবন্দির ভিডিও চিত্রও বাবুল আক্তারকে দেখানো হয়।  
গত ৫ জুন সকালে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় নগরীর ও আর নিজাম রোডে দুর্বৃত্তদের উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত ও গুলিতে নিহত হন পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম ‍মিতু।  এ ঘটনায় বাবুল আক্তার নিজে বাদি হয়ে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই সিএমপির সঙ্গে তদন্তে নামে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন এবং কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।  এক সপ্তাহ পর আইজির নির্দেশে ঘটনা তদন্তে পাঁচটি সমন্বিত টিম গঠন করা হয়।  টিমের কার্যক্রম মনিটরিংয়ের দায়িত্ব পান পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার।  চার খুনিকে আটকের পর বুধবার বনজ কুমার মজুমদার চট্টগ্রাম ছাড়েন বলে সূত্র জানায়।

 


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

ধামরাইয়ে অর্ধশত মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পায়নি

ধামরাইয়ে অর্ধশত মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পায়নি

 মন্ত্রণালয়ের একটি চিঠির আলোকে ঢাকার ধামরাইয়ে প্রায় অর্ধশত বীর মুক্তিযোদ্ধার সম্মানী ভাতা স্থগিত করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় কারাগারের কয়েদির মৃত্যু

কেন্দ্রীয় কারাগারের কয়েদির মৃত্যু

 ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে (কেরানীগঞ্জ) সোহেল (২৪) নামে এক কয়েদির মৃত্যু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে

বিশ্বকাপ ফুটবলে আইএস’এর জঙ্গি হামলার হুমকি

বিশ্বকাপ ফুটবলে আইএস’এর জঙ্গি হামলার হুমকি

সারাবিশ্বের ফুটবল পাগল দর্শকরা যখন গভীর আগ্রহে রাশিয়ায় সমবেত হচ্ছে বা বিভিন্ন দেশের দর্শক টেলিভিশন


বাজেট পাসের আগেই চালের দাম কেজি প্রতি ৫ টাকা বৃদ্ধি

বাজেট পাসের আগেই চালের দাম কেজি প্রতি ৫ টাকা বৃদ্ধি

আসছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে চাল আমদানির ওপর ২৮ শতাংশ শুল্ক পুনর্বহাল করা হয়েছে।

সিএমএইচে কেন বিশ্বাস নেই খালেদার : প্রশ্ন কাদেরের

সিএমএইচে কেন বিশ্বাস নেই খালেদার : প্রশ্ন কাদেরের

 কারাগারে অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকারের পক্ষ থেকে দ্বিতীয় দফায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে

ঈদে বড় কোনো হুমকি নেই: ডিএমপি কমিশনার

ঈদে বড় কোনো হুমকি নেই: ডিএমপি কমিশনার

 জামিনে বের হওয়া জঙ্গিদের বিশেষ নজরদারিতে রাখা হচ্ছে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া। ঈদকে


মুসার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ জুলাই

মুসার বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ জুলাই

শুল্ক ফাঁকি ও সুইস ব্যাংকে টাকা জমা রাখার অস্বচ্ছ হিসাব দাখিলের অভিযোগে ব্যবসায়ী প্রিন্স মুসা

খালেদা জিয়াকে ঈদ শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা

খালেদা জিয়াকে ঈদ শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে যাবেন বিএনপি নেতারা

 দলীয় প্রধান কারাগারে, আর তাই ঈদুল ফিতরের দিনে তাদের নেত্রীকে দেখতে ও শুভেচ্ছা জানাতে জেলগেটে

হাসিনা যে সুযোগ পেয়েছেন, খালেদা কেন পাবেন না?

হাসিনা যে সুযোগ পেয়েছেন, খালেদা কেন পাবেন না?

 বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে পাঠাবে না সরকার। অথচ এক সময় শেখ হাসিনা



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ