ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। চিকিৎসকের পরামর্শমতো চলার পরও এই রোগ ঠেকানো প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে দীর্ঘদিন ধরে ওষুধ কিংবা ইনসুলিন নিয়েও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করতে পারছেন না- এমন রোগীদের জন্য সুখবর। ওষুধ কিংবা ইনসুলিন ছাড়াই কীভাবে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সে ব্যাপারে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টার রোগীদের পরামর্শ দিয়েছেন। ওই কৌশল প্রয়োগের মাধ্যমে মাত্র ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

আরো পড়ুন : করোনা মোকাবেলায় ঘরেই তৈরি করুন হ্যান্ডওয়াশ

বিভিন্ন ধরনের মেডিটেশন, ব্যায়াম থেকে মানুষ দূরে সরে যাচ্ছে। অপরদিকে ওষুধ কোম্পানিগুলোর আগ্রাসী বাণিজ্যিক নীতির কবলে পড়ে মানুষের মধ্যে ওষুধ নির্ভরতা দিন দিন বাড়ছে। ওইসব ওষুধ সেবনের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। যা জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাক্তক ক্ষতিকর। তাই এই ওষুধ নির্ভরতা কমানো প্রয়োজন।

হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোবিন্দ চন্দ্র দাস বলেন, ডায়াবেটিস কোনো প্রাণঘাতী রোগ নয়। তবে সব রোগের উপসর্গ হিসেবে কাজ করে। নিয়মতান্ত্রিক জীবনযাপনের মাধ্যমে ডায়াবেটিস আক্রান্ত একজন ব্যক্তি শতভাগ সুস্থ থেকে দীর্ঘায়ু লাভ করতে পারেন।

আরো পড়ুন : ৭ রোগ প্রতিরোধ করবে কিউই ফল

ডা. গোবিন্দ দাস আরো বলেন, ওষুধের ব্যবহার ছাড়া শুধুমাত্র ব্যায়াম, খাদ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে মাত্র ৭২ ঘণ্টা বা তিন দিনে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।  

বেসরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মহীন্দ্র নাথ বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর ধরে তিনি ডায়াবেটিসে ভুগছেন। আগে প্রতিদিন ৫৬ ইউনিট করে ইনসুলিন নিতেন। বর্তমানে ইনসুলিন ও ওষুধ ছাড়াই ব্যায়াম ও খাদ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সুস্থ আছেন।

তাই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওষুধের ওপর ভরসা না করে ব্যায়াম ও কথিক খাদ্য ব্যবস্থাপনা গড়ে তুলুন। সুস্থও থাকুন।

তথ্য: হলিস্টিক হেলথ কেয়ার সেন্টার।