কিছুতেই কমছে না করোনার দাপট। ইতোমধ্যে এই ভাইরাস কেড়ে নিয়েছে ৭ হাজারের বেশি প্রাণ। সবার মনেই বিরাজ করছে করোনা আতঙ্ক। এখনো অব্দি এই ভাইরাসের কোনো ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত হয়নি। আর তাই, করোনা থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় হলো সতর্ক থাকা। 

আরো পড়ুন : যে ১০টি খাবার ও ভিটামিন করোনার বিরুদ্ধে লড়বে!

খুব বেশি প্রয়োজন না হলে ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। আমদের দেশেও বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। হোম কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশ আসতে পারে যে কোনো সময়। এমন অবস্থায় কিছু খাবার সংরক্ষণে রাখতে পারেন যা আপনাকে ঘরে থাকা দিনগুলোতে পুষ্টি চাহিদা পূরণে সাহায্য করবে। 

চাল 

আমাদের প্রধান খাদ্য ভাত। আপনার বাসায় চাল কী শেষের দিকে? তবে একটু বেশি চাল কিনে সংরক্ষণে রাখুন এখনই। বাড়িতে কোয়ারেন্টাইন করলে এটি কাজে আসবে। 

আরো পড়ুন : অতিরিক্ত পানি-অ্যালকোহলযুক্ত পানীয়তে ভালো হয় না করোনা

সবজি

অল্প সবজি না কিনে এবার একটু বেশি সবজি কিনে নিন। বিন, মটরশুঁটি, গাজরের মতো সবজিগুলো হালকা ভাপে মাসখানেক সহজেই সংরক্ষণ করা যায়। চাইলে অন্যান্য সবজি কেটে এয়ারটাইট বক্স বা প্যাকেটে ভরে ফ্রিজে রাখতে পারেন। 

ফল

বাজারে ক্যানে ভরা ফল পাওয়া যায় সেগুলো কিনতে পারেন। কিংবা কমলা, আঙুর ইত্যাদি ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল মজুদ করতে পারেন ফ্রিজে। 

পাস্তা

দীর্ঘদিন ব্যবহার করা যায় এমন একটি খাবার পাস্তা। বাজারে নানা সাইজ ও ধরনের পাস্তা পাওয়া যায়। পছন্দমতো কিনে সংরক্ষণ করুন। হোম কোয়ারেন্টাইনের সময় খেতে পারবেন। 

মাছ, মাংস, ডিম

ফ্রিজে সংরক্ষণ করা মাছ, মাংস আর ডিম যদি শেষের দিকে থাকে তবে দুই তিন সপ্তাহের জন্য বেশি করে কিনে নিন। তাহলে আর বাজারের প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হতে হবে না। 

আরও পড়ুন : অফিসে করোনা থেকে বাঁচবেন যেভাবে

এসবের পাশাপাশি কিনে রাখুন আলু, ডাল, তেল, লবণ, চিনির মতো দরকারি জিনিসগুলো। আতঙ্কিত না হয়ে কিছুদিন ঘরে থাকুন। এতে সুরক্ষিত থাকবেন আপনি ও চারপাশের সবাই।