পুরুষ কিংবা নারী সবাই চায় নিজেকে স্লিম এবং সুন্দর রাখতে। কিন্তু আমাদের খাদ্যাভাস, দীর্ঘ সময় বসে বসে কাজ করা, দৈহিক পরিশ্রম কম হওয়াসহ বিভিন্ন কারণে শরীরে মেদ জমতে শুরু করে। আর এই সমস্যা সবচেয়ে প্রকট হয় যখন এই মেদ বা চর্বি আমাদের পেটের চারপাশে জমতে শুরু করে। অবশ্যই পেটে চর্বি কমাতে হলে আমাদের কিছু কিছু খাবার একদম এড়িয়ে চলতে হবে।

আরো পড়ুন : কোষ্ঠকাঠিন্যে ডুমুরের রস দেবে দুর্দান্ত সমাধান

১। পটেটো চিপসঃ স্ন্যাক্স সবসময়ই আমাদের পছন্দের খাবার। আর স্ন্যাক্সের মধ্যে পটেটো চিপস আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। আমরা সবাই প্রায় সমসময়ই পটেটো চিপস খেয়ে থাকি। কিন্তু আমরা জানি না যে, দেখতে খুবই সাধারণ এই পটেটো চিপসই আমাদের পেটের মেদ বৃদ্ধির জন্য দায়ী খাবার গুলোর মধ্যে একটি।  আসলে বেশিরভাগ চিপস তৈরী করার সময় হাইড্রোজেনেটেড তেলে রান্না করা হয়। এই ধরনের তেলে ট্রান্স-ফ্যাট থাকে। যা আমাদের ফ্যাট হিসেবে আমাদের পেটের চারপাশে জমতে থাকে। একই সাথে এর মধ্যে থাকে প্রচুর ক্যালরি। আর এই ক্যালরি আমরা বার্ন করতে পারি না। ফলে  আমাদের শরীরের ওজন বেড়ে যায় । তাই আপনি যদি বেলি ফ্যাট বা পেটের মেদ কমাতে চান, তাহলে আজ থেকেই পটেটো চিপস খাওয়া বাদ দিয়ে দিন।

২। সোডা অথবা সফট ড্রিংকসঃ সোডা বা সফট ড্রিংক বর্তমানে খুবই জনপ্রিয়। বিশেষ করে তরুন সমাজের কাছে এটা এখন একটা ট্রেন্ড হয়ে দাড়িয়েছে। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে, এটি আমাদের শরীরের কতটা ক্ষতি করে। বিশেষ করে আমাদের মেদ বৃদ্ধির জন্য এটি অন্যতম দায়ী। আসলে এসব সোডা বা সফট ড্রিংকস জাতীয় পানীয়তে আছে প্রচুর পরিমাণে অসম্পৃক্ত ফ্যাট, চিনি এবং ক্যালরি। আর আমরা সবাই জানি যে, অতিরিক্ত ক্যালরি মানেই শরীরে অতিরিক্ত শর্করা সরবাহ করা। যা খেলে আমাদের মেদ বৃদ্ধি পায় এবং এই মেদ আমাদের পেটের চারপাশে জমতে শুরু করে। সুতরাং যারা পেটের মেদ নিয়ে অস্বস্তিতে আছেন বা যারা পেটের মেদ বাড়াতে চান না, তারা অবশ্যই এসব সোডা বা সফট ড্রিংকস জাতীয় পানীয় থেকে দূরে থাকবেন।

আরো পড়ুন : টনসিলের ব্যথায় কষ্ট পাচ্ছেন, জেনে নিন ৫ ঘরোয়া প্রতিকার!

৩। ফাস্ট ফুডঃ আচ্ছা আপনি কি ফাস্টফুড খেতে পছন্দ করেন? এই প্রশ্ন যদি কাউকে করা হয়, তাহলে কেউ না বলবে না। আসলে ফাস্টফুড এমন একটি খাবার যা সবাই খেতে পছন্দ করে থাকে। ফাস্টফুড খেতে বেশ সুস্বাদু হলেও এটি কিন্তু আমাদের শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতি কর। এসব খাবার আমাদের শরীরে বিভিন্নভাবে ক্ষতি করে থাকে। বিশেষ করে আমাদের ওজন বৃদ্ধির জন্য এই খাবারটি সবচেয়ে বেশি দায়ী। ফাস্টফুড  খেলে শরীরে অতিরিক্ত মাত্রায় ফ্যাট বৃদ্ধি পায়। আর এসব ফ্যাট সবার আগে জমতে শুরু করে আমাদের পেটের চারপাশে। ফলে খুব দ্রুত আমাদের পেট মেদ বহুল হয়। তাই পেটের চর্বি কমানোর জন্য সবার আগে ফাস্টফুড খাওয়া একদম বন্ধ করুন।

৪। আইসক্রীম এবং মেওনীজঃ এটি শুনলে হয়তো অনেকেরই মন খারাপ হয়ে যাবে। তবে সুস্থ থাকতে এবং পেটের মেদ কমাতে অবশ্যই আপনাকে আইসক্রীম খাওয়া বন্ধ করতে হবে। কারণ এতে রয়েছে শুধুমাত্র চিনি এবং ফ্যাট। তাই পেটের চর্বি কমাতে আইসক্রীম খাওয়া বন্ধ করুন। আর মেওনিজের পুষ্টিতালিয়ার বেশীরভাগ অংশ জুরেই রয়েছে ক্যালোরি। যা আপনার শরীরে অতিরিক্ত পরিমানে ফ্যাটের বৃদ্ধি ঘটায় এবং আপনার পেটকে মেদবহুল করে তলে। একই সাথে অতিরিক্ত লবণ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। এটিও আমাদের পেটের মেদ বৃদ্ধির জন্য অনেক দায়ী। তাই পেটের মেদ কমাতে লবণাক্ত খাবার বাদ দিন।

৫। ডেইরী ফুডঃ ডেইরী ফুড হলো সেসব খাবার যা দুধ থেকে তৈরি। যেমন দই, মাখন, মিল্ক শেক ইত্যাদি। যদিও এসব খাবার দুধ থেকে তৈরি, তবুও আমাদের ওজন বৃদ্ধিতে এসব খাবারও কিন্তু দায়ী। কারণ ডেইরী খাবারে থাকা ল্যাকটোজ, ক্যালরি এবং অন্যান্য উপাদান আমাদের মেদ বৃদ্ধির জন্য ভুমিকা পালন করে। তাই আপনি যদি পেটের চর্বি কমাতে চান তাহলে আজ থেকে দুগ্ধজাত দ্রব্য বা ডেইরী ফুড খাওয়া বন্ধ করুন বা কমিয়ে দিন। আর যদি খেতেই হয় তবে ল্যাকটোজ ফ্রি খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন যা সহজেই হজম হয়।