চট্টগ্রাম সংবাদদাতা : বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক ব্যক্তি। আইসোলেশনে আছেন কয়েকজন। এছাড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন প্রায় হাজার খানেক প্রবাসী। কিন্তু সরকারি এ নির্দেশনা মানছেন না অনেক প্রবাসী। বুঝে কিংবা না বুঝেই অনেকে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বাইরে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করেও তাদের ঘরে রাখা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনাপ্রাপ্ত প্রবাসীদের চিহ্নিত করতে তাদের হাতে অমোছনীয় কালির সিল দেয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামে করোনা বিষয়ক এক বৈঠকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন।মন্ত্রিপরিষদ থেকে এমন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলেও বৈঠকে উল্লেখ করেন তিনি।

আরো পড়ুন : জরিমানা করেও ঘরে রাখা যাচ্ছে না প্রবাসীদের

এরআগে করোনার উপসর্গ থাকা ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে পালানো ঠেকাতে তাদের বাঁ হাতে একটি বিশেষ ‘সিল’ মেরে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে দেখা গেছে ভারতের মহারাষ্ট্রে। অনেকটা সে আদলেই বাংলাদেশেও এ সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে।

বিশ্বজুড়ে ২ লাখ ১৯ হাজার ৮৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে মারা গেছে ৮ হাজার ৯৬১ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮৫ হাজার ৬৭৩ জন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় অনেক দেশেই জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ১৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে। মারা গেছেন ১ জন।