চীনের হুবেইপ্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা দিন দিন বাড়ছেই। সারাবিশ্বে ১০ সহস্রাধিক লোকের মৃত্যু হয়েছে এ রোগে। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় আড়াই লাখ মানুষ। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৫ হাজারের বেশি মানুষ। ভাইরাস প্রতিরোধে হাত ধোয়ার ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-হু। কারণ হাতের মধ্য দিয়ে এই ভাইরাস শ্বাসনালিতে আক্রমণ করে।

আরো পড়ুন : চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতীত প্যারাসিটামল নয়

এবার এই হাত ধোয়ার ওপর গুরত্ব দিয়েছে সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল। শুক্রবার হোমপেজে প্রকাশিত এক ভিডিওর মাধ্যমে দেখানো হলো হাত ধোয়ার পদ্ধতি। ডুডলটিতে রয়েছে একটি প্লে বোতাম। সেটি প্লে করলেই ৫০ মিনিটের অ্যানিমেশনের মাধ্যমে ছয় ধাপে হাত ধোয়া শেখানো হচ্ছে।

আসুন জেনে নিই এই ৬টি ধাপ-

প্রথমে হাতে সাবান মাখাতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে আঙুলের খাঁজ পরিষ্কার করতে হবে। তৃতীয় ধাপে দুই হাতের আঙুলগুলো একে অপরের মধ্য দিয়ে কচলে সাবান মাখানো। এর পর আঙুলের ডগা পরিষ্কার করে পঞ্চম ধাপে বুড়ো আঙুল কচলে ধোয়া। ষষ্ঠ ধাপে হাতের তালু পরিষ্কার। এর পর পানি দিয়ে ভালো করে সাবান ধুয়ে ফেললেই হাত পরিষ্কার হয়ে গেল।

আরো পড়ুন : করোনা আতঙ্ক : রোগ প্রতিরোধে খাবেন যা

এবার আসা যাক অ্যানিমেটেড ভিডিওতে দেখা যাওয়া ব্যক্তি প্রসঙ্গে। তিনি হাঙ্গেরির আগনাজ সেম্মেলউইস। যিনি মৃত্যুর পর ‘প্রসূতিদের ত্রাণকর্তা’ নামে খ্যাতি পান।

তার হাত ধরেই বিশ্ব জানতে পারে হাত ধোয়ার উপকারিতা। অ্যান্টিসেপটিক ধারণার জন্মও দেন তিনিই। সেই বিখ্যাত মানুষটির শেখানো হাত ধোয়া এই একবিংশ শতাব্দীতেও করোনা থেকে রক্ষা করছে মানুষকে।