শরীরে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ জনকে বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে দুজন সৌদি ফেরত, অন্যজন মালয়েশিয়া ফেরত।শুক্রবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন তৌহিদ- উল-আহসান এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শরীরে তাপমাত্রা বেশি থাকলে হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। করোনাভাইরাস আক্রান্ত দেশ থেকে এলে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হচ্ছে।

আরো পড়ুন : করোনা নিয়ে কেউ গুজব ছড়াবেন না: তথ্যমন্ত্রী

তিনি আরও বলেন, ‘যাত্রী নামলে সেনা তত্ত্বাবধানে চলে যাবে’ এই মর্মে কোনো নির্দেশনা এখনো সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছায়নি। এরকম নির্দেশনা এলে বাস্তবায়ন করা হবে। পরিচালক বলেন, নির্দেশনা পেলেও এয়ারপোর্টের ভেতরে কোনো সেনা উপস্থিত থাকবে না। যদি তারা আসে, যাত্রী নিতে চায়- বাইরে থেকে প্যাসেঞ্জার নিয়ে যাবে।

গত ৫ দিনে গড়ে ৭ হাজার যাত্রী বিদেশ থেকে এসেছেন জানিয়ে তৌহিদ উল আহসান বলেন, যাত্রীদেন তথ্য সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের কাছে থাকে না। এটা ইমিগ্রেশনের কাছে থাকে। তাদের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে জানতে পেরেছি গত ৫ দিনে গড়ে ৭ হাজার যাত্রী এসেছেন। এদের মধ্যে ৮০ ভাগই বাংলাদেশি।

মৃত্যু ছাড়িয়েছে ১০ হাজার
এখন পর্যন্ত ১৭৯টি দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। সারাবিশ্বে ২ লাখ ৪৫ হাজার ৬১৩ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১০ হাজার ৪৮ জন। এছাড়া চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৮ হাজার ৪৩৭ জন। করোনা আতঙ্কে অনেক দেশই অবরুদ্ধ (লক ডাউন) হয়ে পড়েছে। দোকান-পাট, ব্যবসায় বাণিজ্য, স্কুল, কলেজ সব বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত চীনে ৮০ হাজার ৯৬৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে মারা গেছে ৩ হাজার ২৪৮ জন।

আরো পড়ুন : দেশের সব বার ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় এখন সবার ওপরে আছে ইতালি। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ৪২৭ জনের প্রাণহানির সঙ্গে সঙ্গে তারা ছাড়িয়ে গেছে করোনার উৎস চীনকেও। এ নিয়ে ইউরোপের দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৪০৫ জনে।

বাংলাদেশকে ১০ হাজার কিট দিচ্ছে চীন
করোনাভাইরাস শনাক্তকরণে বাংলাদেশকে ১০ হাজার কিট দিচ্ছে চীন। পাশাপাশি ১৫ হাজার সার্জিক্যাল মাস্ক এন-৯৫, ১০ হাজার চিকিৎসক ও নার্সের সুরক্ষায় গাউন এবং এক হাজার ইনফ্রারেড থার্মোমিটার দিচ্ছে দেশটি। এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি নোট ভারবাল (আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক পত্র) দিয়েছে তারা। মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নোট ভারবালে চীন জানিয়েছে, ওই সহায়তা সামগ্রী ঢাকা পর্যন্ত নিজ খরচে পৌঁছে দেবে তারা। তবে কাস্টমস ক্লিয়ারেন্স এবং বিমানবন্দর থেকে যথাযথ স্থানে (গোডাউন) পৌঁছানো ও বিতরণে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত (যথাযথ তাপমাত্রার) বিশেষায়িত পরিবহন বাংলাদেশকেই নিশ্চিত করতে হবে। এসব সামগ্রীর সংরক্ষণ এবং পরিবহনে যথাযথ তাপমাত্রা নিশ্চিতেও অনুরোধ করা হয় নোটটিতে।

চিকিৎসকদের অ্যাপ্রোন স্যানিটাইজার দিচ্ছে বিদ্যানন্দ
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চিকিৎসকদের পাশে দাঁড়িয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন। সংগঠনটি চিকিৎসকদের পৌঁছে দিচ্ছে অ্যাপ্রোন, মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার। এছাড়াও প্রয়োজন হলে তাদের খাবারের ব্যবস্থাও করবে সংগঠনটি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের ‘এক টাকার আহার’ পেজে একটি পোস্ট দেয়া হয়।

ওই পোস্টে বলা হয়, ‘দেশে ইতিমধ্যে চার চিকিৎসককে কোয়ারেন্টাইনে যেতে হয়েছে। মানবসেবার এই দৃষ্টান্ত আমাদের অনুপ্রাণিত করে। আমরা চাইলেও তো আর রোগীর সেবা করতে পারবো না। তাই যারা এ যুদ্ধে জীবন বাজি রেখে লড়তে যাচ্ছে, তাদেরকে যদি কোনোভাবে সাহায্য করতে পারি তবে আমাদের জন্ম সার্থক।