করোনাভাইরাস বর্তমানে বিশ্বজুড়ে আতঙ্কের নাম। এ ভাইরাসে প্রতিনিয়তই গাণিতিক হারে বাড়ছে আক্রান্তের হার। বাড়ছে মৃত্যু বরণের সংখ্যাও। বিভিন্ন দেশে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল লকডাউন করা হয়েছে। স্থবির হয়ে পড়েছে সব ধরনের প্রতিষ্ঠান।

বিশেষজ্ঞরা বারবার বলছেন, দীর্ঘমেয়াদী অসুস্থতা যাদের রয়েছে, করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে তাদের ঝুঁকি অনেকটাই বেশি। যে অসুস্থতাগুলো করোনাভাইরাসের কাছে ব্যক্তিকে দুর্বল করার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়, তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ডায়াবেটিস।

তবে আশার কথা হলো, ডায়াবেটিস যদি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়, তাহলে ঝুঁকি কিছুটা কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তা না হলে ডায়াবেটিসের কারণে যে কোনো অসুস্থতাই সহজে মজবুত হয়ে ওঠে। করোনাভাইরাস তো আরো ভয়াবহ। ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা খুবই জরুরি।

চিকিৎসকরা জানান, করোনাভাইরাস যখন মহামারীর পর্যায়ে পৌঁছে গেছে; তখন ডায়াবেটিস রোগীদের বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরি। কারণ ডায়াবেটিস আক্রান্তদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এমনিতেই কম থাকে। যে কারণে দুর্বল শরীরে সহজেই থাবা বসাতে পারে করোনাভাইরাস।

এক্ষেত্রে ডায়াবেটিক আক্রান্তদের হাইজিন রক্ষা করার দিকে বিশেষভাবে নজর দিতে হবে। যতটা সম্ভব মেলামেশা কমাতে হবে। মুঠোফোনে বা সোশ্যাল মিডিয়ায় খবর নিতে পারেন। মুখোমুখি দেখা করা, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, জনসমাবেশে যাওয়া বন্ধ রাখুন।