সাভারে হোম কোয়ারেন্টাইন না মানায় দুবাই ফেরত এক প্রবাসীকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। রোববার বিকেলে উপজেলার বনগাঁও ইউনিয়নের সাধাপুর মাঝিপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামুন কায়সার (৪০) নামের ওই প্রবাসীকে জরিমানা করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজুর রহমান। এ ছাড়া সাভারে আরও ১০ ব্যাক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

আরো পড়ুন : সাভারে হোম কোয়ারেন্টাইন না মানায় আয়ারল্যান্ড প্রবাসীকে ৭ হাজার টাকা জরিমানা

স্থানীয়রা জানায়, গত সপ্তাহে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই থেকে আসা ওই প্রবাসী হোম কোরারেন্টাইন না মেনেই যত্রতত্র ঘোরাঘুরি করতে থাকেন। তাকে হোম কোরারেন্টান মেনে চলার অনুরোধ করা হয়। কিন্তু তিনি তা না মেনে শ^শুড়বাড়িসহ আশোপাশের আতœীয় স্বজনের বাসা বাড়িতে যাওয়া অব্যাহত রাখে। এঘটনায় রোববার দুপুরে এলাকাবাসী বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানালে তার নেতৃত্ব ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়। সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট পারভেজুর রহমান জানান, অভিযানের সময় আমরাও তাকে কোরারেন্টাই না মেনে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছি। যে কারনে আমরা ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে তাকে সর্তক করে দিয়েছি।

আরো পড়ুন : সাভার প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল মাস্টারের ইন্তেকাল

এদিকে কোভিড-১৯ সংক্রমন এড়াতে সাভার ও ধামরাইতে নতুন করে আরো ২০জনসহ ৭১ জনকে হোম কোরারেন্টাইনে পাঠিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.সায়েমুল হুদা জানান, নতুন করে সাভারে ১০ জনসহ ৬১জনকে হোম কোয়ারাইন্টানে পাঠানো হয়েছে। তারা যথাযথভাবে কোরারাইন্টাইন মানছেন কিনা তা কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এছাড়া সাভারে সব ধরনের হোটেল রেস্তোঁরা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সাভার থানা প্রশাসন। সাভার মডেল থানার ওসি এএফএম সায়েদ জানান, পরিস্থিতি অবনতি হবার আগেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাস আতঙ্কে অনেকটাই জনশূণ্য হয়ে পড়েছে সাভারের সড়ক মহাসড়কগুলো। প্রয়োজন ছাড়া খুব একটা বাড়ির বাহিরে বের হচ্ছেন না বাসিন্দারা।