‘বাড়িতে থাকুন, নিরাপদ থাকুন’- সারাবিশ্বের ক্রীড়াবিদরা এই বাক্যটি সামনে রেখেই করোনাভাইরাসের ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টি করে যাচ্ছেন। এর অংশ হিসেবে বাড়িতে বসে কখনও টয়লেট পেপার দিয়ে ক্রিকেট খেলা আবার প্যাড-গার্ড পরেই ব্যায়াম করছেন ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা।

কিন্তু ব্যতিক্রম দেশটির সাবেক পেসার রায়ান সাইডবটম। করোনা আতঙ্কের মাঝেই নিজের দ্বিতীয় বিয়ে সেরেছেন ৪২ বছর বয়সী পেসার। তাও রীতিমতো জাকজমকপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। ৪০ বছর বয়সী ড্যান্সিং অন আইস তারকা ও ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট নির্বাহী ম্যাডেলিন কস্টিগানকে বিয়ে করেছেন ৪২ বছরের সাইডবটম।

তবে এক্ষেত্রে নিজেকে ভাগ্যবান দাবি করছেন ঝাঁকড়া চুলের সাইডবটম। গত শনিবার থেকে ইংল্যান্ডে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে গণজমায়েত না করার জন্য এবং ভিড় এড়িয়ে চলার জন্য। আর সাইডবটমের বিয়েটা হয়েছে ঠিক তার আগেরদিন অর্থাৎ শুক্রবার।

এ বিষয়ে সাইডবটম বলেন, ‘আমি ভাগ্যবান যে যেভাবে চেয়েছিলাম সেভাবেই আমরা বিয়ের অনুষ্ঠানটা করতে পেরেছি। দিনটা সত্যিই অসাধারণ ছিলো। যাদের বিয়ে স্থগিত করতে হচ্ছে, তাদের জন্য খারাপ লাগছে। তবে সার্বিক বিবেচনায় মানুষের স্বাস্থ্যই সবার আগে।’

বন্ধু-বান্ধব ও আত্মীয়স্বজনের উপস্থিতিতে বেশ জাঁকজমকপূর্ণভাবেই হয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান। উপস্থিত ছিলেন সাইডবটমের সাবেক সতীর্থ লিয়াম প্লাঙ্কেট, অ্যালেক্স টুড্যররা। বিয়ে উপলক্ষ্যে ভিডিও বার্তায় সাইডবটমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন রবি উইলিয়ামস, অ্যালান শিয়ারার, কেভিন কিগান, ফিল টাফনেলের মতো সংগীত ও ক্রীড়া জগতের তারকারা।

উল্লেখ্য, ইংল্যান্ড জাতীয় দলের হয়ে ২০০১ থেকে ২০১০ পর্যন্ত খেলেছেন সাইডবটম। এ সময়ের মধ্যে ২২ টেস্টে ৭৯, ২৫ ওয়ানডেতে ২৯ ও ১৮ টি-টোয়েন্টিতে ২৩ উইকেট শিকার করেছেন এ বাঁহাতি পেসার। তিনি সবধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন ২০১৭ সালে।