বৈশ্বিক মহামারি করোনায় আক্রান্ত প্রায় পুরো বিশ্ব। সবখানেই বিরাজ করছে আতঙ্ক। বিশ্বের বহু দেশে মুসলিম উম্মাহ মসজিদে নামাজে যেতে পারছে না। রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্তে মসজিদে নামাজ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাই পরিস্থিতি বিবেচনায় ঘরে বসেই নামাজ পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন জনপ্রিয় দাঈ মাওলানা তারিক জামিল।

পাকিস্তানের জনপ্রিয় ইসলামিক স্কলার ও তাবলিগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় দাঈ মাওলানা তারিক জামিল এক ভিডিও বার্তায় এ আহ্বান জানান। তবে তিনি তার ভিডিও বার্তায় তুলে ধরেন নামাজসহ বিভিন্ন দিকনির্দেশনা।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী মহামারি করোনাভাইরাসকে দুনিয়াবাসীর উপর আল্লাহর একটি পরিক্ষা আখ্যায়িত করে এ পরিস্থিতিতে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

উর্দু গণমাধ্যম ডেইলি জং মাওলানা তারিক জামিলের এক ভিডিও বয়ানের উদ্বৃতি দিয়ে সোমবার এ কথা জানায়। তিনি তার বয়ানে করোনাভাইরাস রোধে সতর্ক থাকতে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলারও আহ্বান জানান।

তাবলিগ জামাতের এ শীর্ষস্থানীয় দাঈ তার সাবলিল ভঙ্গির দাওয়াতি আলোচনায় বিশ্বব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয়। বৈশ্বিক এ মহামারি থেকে আত্মরক্ষায় তিনি সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে ঘরে বসেই নামাজ আদায়ের আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, ‘যদি মুসাফাহার (হ্যান্ডশ্যাক) কারণে কোনো ব্যক্তির করোনা সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে তাহলে আপাতত মুসাফাহা থেকেও বিরত থাকা উচিত।

তিনি বলেছেন, মসজিদে জামাআতে নামাজ আদায়ে যদি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়ার ভয় থাকে, তবে পরিস্থিতি বিবেচনা করে নিজেদের ঘরেই নামাজ আদায় করুন।

এছাড়া তিনি যে কোনো জনসমাগম এড়িয়ে চলার সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানান।

বৈশ্বিক এ মহামারিতে মানুষের সুস্থ থাকা অনেক বেশি জরুরি। পরিস্থিতি বিবেচনায় ঘরে নামাজ আদায়, মুসাফাহা থেকে বিরত থাকা এবং জনসমাগম থেকে বিরত থাকা প্রতিটি দেশের জন্যই জরুরি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে মহামারি করোনা থেকে হেফাজত থাকতে সরকারি দিকনির্দেশনা মেনে চলার পাশাপাশি তার কাছে গোনাহ থেকে ক্ষমা লাভে বেশি বেশি ইবাদত-বন্দেগিতে নিয়োজিত হওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।