করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে সচেতনতার অংশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রে নিজেকে সেলফ কোয়ারেন্টাইনে রেখেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তার মাধ্যমে যেনো এ প্রাণঘাতী ভাইরাস না ছড়ায়, তাই বিমানভ্রমণ করে যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছে নিজ উদ্যোগেই এটি করেছেন সাকিব।

শুধু নিজেকে কোয়ারেন্টাইনড করেই দায়িত্ব শেষ মনে করেননি বাংলাদেশের এ চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটার। যেহেতু করোনার বিরুদ্ধে সরাসরি লড়াই করার কিছু নেই, শুধু সৃষ্টি করা যায় সচেতনতা- সেটিই নিয়মিত করে যাচ্ছেন সাকিব।

কোয়ারেন্টাইনে থেকে নিয়মিত ভিডিওবার্তার মাধ্যমে বিভিন্ন সচেতনতামূলক বার্তা দিচ্ছেন সাকিব। যাতে করে কিছুটা হলেও সচেতনতা বৃদ্ধি পায় সাধারণ জনগণের মাঝে। একইসঙ্গে করোনার বিরুদ্ধে যারা যুদ্ধে নেমেছেন- সেসব মানুষদের শ্রদ্ধা ও সম্মান জানালেন তিনি।

বছর চারেক আগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে বেন স্টোকসকে আউট করার পর মাঠের মধ্যেই স্যালুট দিয়েছিলেন সাকিব। যেটি পরে পরিচিত পায় ‘সাকিবীয় স্যালুট’ হিসেবে। সেই ছবিটিও হয়ে যায় দেশের ক্রিকেটের বিখ্যাত একটি চিত্র।

এবার সেই ছবিটিকে সাকিব ব্যবহার করলেন করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামা সকলকে স্যালুট জানানোর জন্য। প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিপক্ষে নামা সকলকে ‘সত্যিকারের হিরো’ বলে অভিহিত করেছেন সাকিব। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দিয়েছেন বার্তা।

যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘সকল দেশবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে যারা মারাত্মক এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছেন প্রতিনিয়ত, তাদেরকে জানাই আমার সালাম। ধন্যবাদ জানাই প্রতিটি ডাক্তার, নার্স, চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবা কর্মী, স্বেচ্ছাসেবক, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর সদস্য এবং সরকারী কর্মকর্তাদের যারা নিঃস্বার্থ ও অক্লান্তভাবে লড়াই করে চলেছেন।’

একইসঙ্গে তিনি সাধারণ জনগণকেও আহ্বান জানিয়েছেন, ‘আমরা তাদের সাহায্য করতে যা পারি তা হলো- বাসায় অবস্থান করা, প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করা এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ মেনে চলে এই কঠিন সময়ে তাদের সহায়তা করা। তবেই আমরা একসাথে এই পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে পারবো। আল্লাহ আমাদের সকলকে সাহায্য করুন।’