আইপিএলের সবশেষ আসরে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে মাত্র ৮ ম্যাচেই ৩১১ রান করেছিলেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জস বাটলার। কিন্তু পুরো আসরজুড়েই তিনি আলোচনায় ছিলেন অন্য এক কারণে।

কিংস এলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে ম্যাচে তাকে ম্যানকাডিং আউট করেছিলেন প্রতিপক্ষ অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন। যা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে তুমুল। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সমর্থনটা পেয়েছেন বাটলারই।

টুর্নামেন্টের নতুন মৌসুম শুরুর আগে গত আসরে ঘটা সেই ঘটনার কথা ভুলেই যাওয়ার কথা সবার। কিন্তু না। করোনাভাইরাসের কারণে পুনরায় ভাইরাল হয়ে গেছে অশ্বিন-বাটলারের সেই ম্যানকাডিং আউটের ছবি। যে কারণে অশ্বিনের প্রতি চাপা অভিমান রয়েছে বাটলারের।

করোনা থেকে নিরাপদ থাকতে বলা হচ্ছে, ঘরে থাকুন, নিরাপদ থাকুন। আর অতি উৎসাহীরা এর উদাহরণ দেখানোর জন্য ব্যবহার করছেন বাটলারের সেই ম্যানকাড আউটের ছবি। যেখানে তারা বোঝানোর চেষ্টা করছেন বাটলারের মতো ঘরের (দাগের) বাইরে গেলেই আপনি আউট।

এ বিষয়টা একদমই নিতে পারছেন না বাটলার। ঘটনার প্রায় এক বছর পরেও টুইটারে বারবার এই ছবি দেখে রীতিমতো বিরক্ত এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। যে কারণে তিনি রেগেছেন অশ্বিনের ওপর, কারণ অশ্বিনের কারণেই তো সেদিন ম্যানকাড হয়েছিলেন বাটলার।

আর এ কারণেই করোনার দিনগুলোতে অশ্বিনের সঙ্গে আইসোলেশনে থাকার কোনো ইচ্ছেই নেই বাটলারের। জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, আইসোলেশন পার্টনার হিসেবে একদম শেষে কাকে বেছে নেবেন বাটলার? উত্তরে মজার ছলেই জানিয়েছেন অশ্বিনের নাম।

স্কাই স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে খানিক মজার ছলেই বাটলার বলেন, ‘সম্ভবত রবিচন্দ্রন অশ্বিন হবে শেষ ব্যক্তি, যার সঙ্গে আইসোলেশনে থাকতে রাজি হবো আমি। কারণ প্রায় এক বছর হয়ে গেলো আমি ম্যানকাড আউট হয়েছিলাম। কিন্তু এখনও মানুষ এ বিষয়ে টুইট করে লিখছে, নিরাপদ থাকুন, বাইরে বের হবেন না। এটা সত্যিই বেশি বেশি।’