করোনাভাইরাস মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছে জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। জাতীয় দল ও তার আশপাশে থাকা ২৭ জন ক্রিকেটার দান করেছেন তাদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক টাকা। পিছিয়ে নেই জাতীয় দলের ফুটবলাররাও।

ক্রিকেটারদের মতো দলগতভাবে না হলেও, ব্যক্তিগত উদ্যোগে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ালেন জাতীয় দলের দুই ফুটবলার বিপলু আহমেদ ও আরিফুর রহমান। নিজ বিভাগ সিলেটে বিপলু এবং কুমিল্লা শহরে খেঁটে খাওয়া মানুষদের খাদ্যসামগ্রী দিয়ে সাহায্য করেছেন আরিফুর।

এ উদ্যোগটা প্রথমে নিয়েছেন বসুন্ধরা কিংসের ফরোয়ার্ড বিপলুই। বুধবার সিলেটে খেঁটে খাওয়া দিনমজুরদের দিয়েছেন প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী। তার দেখাদেখি এগিয়ে এসেছেন আরিফুরও। অন্যদের উৎসাহিত করার জন্য দুজনই ভিন্ন ভিন্ন ভিডিও আপলোড করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

সে ভিডিওর ক্যাপশনে বিপলু লিখেছেন, ‘বর্তমান সময়টা খুবই কঠিন আমাদের জন্য, সারা পৃথিবীর জন্য। তাই আমরা ঘরের মধ্যে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন এবং নিরাপদ থাকার পরামর্শ মানছি। কিন্তু এই অবস্থাটা আমাদের দিনমজুর এবং সাধারণ মানুষদের জন্য বিপর্যয় নিয়ে এসেছে।

তাই আমি চেষ্টা করেছি সামান্য কিছু সাহায্য নিয়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে। আমি আমার সতীর্থ এবং বন্ধুদের অনুরোধ করবো নিজেদের সাধ্যমতো সবাইকে সাহায্য করতে।

বি. দ্রঃ আমি বাইরে বের হয়েছিলাম প্রয়োজনেই। অন্যথায় আমিও ঘরের মধ্যেই আছি। তাই দয়া করে সবাই ঘরে থাকুন, নিরাপদ থাকুন এবং সবার জন্য প্রার্থনা করুন।’

বিপলুর এ কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছেন সাইফ স্পোর্টিংয়ের উইঙ্গার আরিফুর রহমান। বিপলুর মতো তিনিও ভিডিওধারণ করে আপলোড করেছেন ফেসবুকে এবং সবাইকে আহ্বান জানিয়েছেন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর।

ভিডিওর ক্যাপশনে আরিফুর লিখেছেন, ‘এটি আমাদের জন্য একটি কষ্টকর সময় কারণ সারা পৃথিবীর বর্তমান পরিস্থিতি অত্যন্ত নাজুক। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও নিজ গৃহে অবস্থান করা- এই উপদেশগুলো এখন আমাদেরকে মেনে চলতে হচ্ছে। কিন্তু এটি দ্বিমুখী সমস্যা সৃষ্টি করেছে আমাদের খেটে-খাওয়া প্রতিবেশী ভাই-বোনদের জন্য।