করোনা প্রতিরোধ করবে ভালো ঘুম, দাবি তুর্কি গবেষকের



চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক এখনও আবিষ্কার হয়নি। বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানী এই ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারের চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তবে তুরস্কের একজন গবেষক দাবি করেছেন, পর্যাপ্ত ঘুমই করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্য করবে।তুরস্কের এডিরন প্রদেশের ট্রাকিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের দেহতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ লেভেন্ট ওজতুর্ক বলেন, পর্যাপ্ত ঘুম শরীরের ন্যাচারাল কিলার সেলগুলোর ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়, যেগুলো টিউমার এবং সংক্রামক রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

আরো পড়ুন : যে ৭ ক্যানসার সহজে শনাক্ত করা কঠিন

তিনি বলেন, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ঠিকভাবে কাজ করার মূল চাবিকাঠি হল ভালো ঘুম। ঘুম ভালো হলে শরীর প্রাকৃতিকভাবেই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে একে পরাজিত করতে পারে।ওজতুর্কের জোর দিয়ে বলেন, মাত্র এক রাত যদি পর্যাপ্ত ঘুম না হয়, তাহলে প্রাকৃতিক ঘাতক লিম্ফোসাইটের সংখ্যা এবং ক্রিয়াকলাপ হ্রাস পায়, যা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।এদিকে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ ‘কম মানুষের সংস্পর্শে আসা’ বলেও উল্লেখ করেছেন ওজতুর্ক। তিনি বলেন, সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে বাসায় থাকা এবং বাসা থেকে কাজ করা। এই মুহূর্তে আমাদের বাসা সম্পর্কে যে ধারণা রয়েছে, তা পরিবর্তন করতে হবে বলেও মন্তব্য করলেন তিনি।

আরো পড়ুন : জেনে নিন কোথায় তৈরি হয়েছিল বিশ্বের প্রথম হ্যান্ড স্যানিটাইজার

অর্থাৎ বাসায় থাকলে আমরা যেমন শুয়ে-বসে বা টিভি বা কম্পিউটার নিয়ে সময় কাটাই, সেই অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে। এগুলোর কারণে ঘুমের অভ্যাসে ব্যাঘাত ঘটবে, যা প্রতিষেধকের ওপর প্রভাব ফেলবে।ঘুমের ওপর প্রতিষেধক প্রভাব নিয়ে বিভিন্ন গবেষণার কথা উল্লেখ করে ওজতুর্ক বলেন, অপর্যাপ্ত ঘুমের কারণে ইনফ্লুয়েঞ্জা, হেপাটাইটিস এ, হেপাটাইটিস বি, এবং এইচ1এন1 এর মতো বিভিন্ন রোগের টিকার কার্যকারিতা অর্ধেক কমে যায়। তুর্কি এই দেহতত্ত্ববিদ দুপুরের ভাতঘুম এড়িয়ে চলারও পরামর্শ দিয়েছেন।