তার জায়গা হয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কেন্দ্রীয় চুক্তিতে, সাম্প্রতিক সময়ে খেলেননি কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচও। ফলে জাতীয় ক্রিকেটাদের মধ্যে যে ২৭ জন মিলে দান করেছেন ৩০ লাখ টাকার বেশি, সেখানে ছিলো না মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের নাম।

জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের সঙ্গে শামিল হতে না পারলেও, নিজ উদ্যোগে ঠিকই অসহায়-দুস্থদের পাশে দাঁড়িয়েছেন ময়মনসিংহের এ তরুণ অলরাউন্ডার। শুক্রবার বিকেলে নিজ এলাকায় একটি পিকআপ ভ্যানের মাধ্যমে অসহায়দের মাঝে জরুরি প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বিতরণ করেছেন মোসাদ্দেক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসবের ছবি আপলোড করেছেন মোসাদ্দেক। সঙ্গে দিয়েছেন এক বিষদ বার্তা। জানিয়েছেন, অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছেন তিনি। এছাড়াও অন্যদের আহ্বান জানিয়েছেন একইভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

ফেসবুক পোস্টে মোসাদ্দেক লিখেছেন, ‘পুরো দেশ আজ করোনা ভাইরাস বা Covid-19 এ স্তব্ধ হয়ে গেছে। গত কয়েক যুগে প্রিয় মাতৃভূমির এমন পরিস্থিতি আর কেউ কখনো দেখেনি৷ ১৬ কোটি মানুষের এই দেশে প্রায় ৬ কোটির মত মানুষ রয়েছে যারা অসহায়, গরীব দুঃস্থ। দিনে ১ বেলা খাবার জোটাতে যাদের হিমশিম খেতে হয়।

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে তারাই আজ সবচাইতে বেশি বিপদে। নেই কোনো আয় রোজগার, তাই পেটেও নেই খাবার। এই মুহূর্তে তাদের পাশে দাঁড়ানো মানুষ হিসেবে আমাদের দায়িত্ব। তারই অংশ হিসেবে আজ ময়মনসিংহের অসহায় দুস্থ ও গরীব লোকদের পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে অনেক সৌভাগ্যমান মনে হচ্ছে।

আসুন আমরা সবাই মিলে দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে তাদের পাশে দাঁড়াই।’