বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নিজেদের অবস্থান থেকে যথাসাধ্য এগিয়ে আসছে ক্রীড়াঙ্গনের তারকারা। চেষ্টা করছেন করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অংশ নিতে, অনুদান দিচ্ছেন বিভিন্ন হাসপাতাল ও দাতব্য প্রতিষ্ঠানে।

সে ধারাবাহিকতায় এবার স্পেনের ক্রীড়াবিদদের একজোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন টেনিস তারকা রাফায়েল নাদাল এবং তার বন্ধু বাস্কেটবল তারকা পাউ গ্যাসল। দুজন মিলে ঠিক করেছেন স্পেনের ১৩ লাখ ৪০ হাজার মানুষের জন্য প্রায় ১০৪ কোটি টাকার এক ত্রাণ তহবিল গঠন করবেন।

স্পেনে করোনার আঘাতে মৃতের সংখ্যা এখন ছাড়িয়ে গেছে এ ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনকেও। এখনও পর্যন্ত স্পেনের প্রায় ৬৬ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়, মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ হাজার ১শ ৩৮ জন। এ সংখ্যাগুলো পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতিদিন।

এমতাবস্থায় করোনার বিপক্ষে লড়াই করার জন্য ‘আমাদের শ্রেষ্ঠ জয়’ নামক ক্যাম্পেইনের শুরু করলেন নাদাল ও গ্যাসল। তাদের লক্ষ্য ক্রীড়াবিদদের মাধ্যমে অন্তত ১১ মিলিয়ন ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১০৪ কোটি টাকা) সাহায্য জমা করা হবে তহবিলে। যা দিয়ে সাহায্য করা হবে স্পেনের ১৩ লাখ ৪০ হাজার মানুষকে।

এ তহবিল গঠনের ঘোষণা দিয়ে নাদাল বলেছেন, ‘এবার সময় এসেছে ক্রীড়াবিদদের দেশের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর। দেশের মানুষের সমর্থন এবং সহযোগিতা আমরা সবসময় পেয়ে এসেছি এবং এখনই সময় দেশের বিপদে ক্রীড়াবিদদের একজোট হওয়ার।’

নাদাল জানিয়েছেন, এ মহৎ উদ্যোগে তারা মূলত রেড ক্রসের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘রেড ক্রসের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আমরা উদ্যোগী হয়েছি দেশের চিকিৎসা ও অন্যান্য সেবার জন্য ত্রাণতহবিল গড়ে তোলার। স্পেনের ক্রীড়াজগতের সবাইকে এই উদ্যোগে শামিল হতে অনুরোধ করছি।’

প্রায় একই বার্তা দিয়েছেন এনবিএ’র বাস্কেটবল তারকা পাউ গ্যাসলও। তিনি বলেন, ‘স্পেনের ক্রীড়াবিদরা সবসময় চেষ্টা করেছে দেশকে গর্বিত করতে। এবার আমরা এর চেয়েও বেশি কিছু করতে চাই। আমাদের লক্ষ্য ১১ মিলিয়ন ইউরো জমা করা, যাতে অন্তত ১৩ লাখ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি। আমি এবং রাফা এরই মধ্যে এতে অংশ নিয়ে। আশা করবো স্পেনের ক্রীড়াজগতের সবাই এগিয়ে আসবে।’

নাদাল-গ্যাসলের এ দারুণ উদ্যোগে প্রশংসা করছেন সবাই। সর্বপ্রথম বাহবা দিয়েছেন স্পেনের ফুটবল দলের কিংবদন্তি গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াস। তহবিলে এরই মধ্যে অনুদান দিয়েও ফেলেছেন ক্যাসিয়াস।

একইসঙ্গে অন্যদের উৎসাহিত করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘সময় এসেছে স্পেনের ক্রীড়াজগতের মানুষদের নিজেদের দায়িত্ব পালনের। আমি এরই মধ্যে কিছু অবদান রেখেছি।’

স্পেন ফুটবল দলের সাবেক কোচ হুলেন লোপেতেগুই তার ইন্সটাগ্রাম একাউন্টে লিখেছেন, ‘আমি আশা করছি দেশের সব ক্রীড়াবিদ এই মহৎ উদ্যোগে অংশ নেবে। যাতে করে পুরো ক্যারিয়ার জুড়ে আমরা যে ভালোবাসা ও সমর্থন পেয়েছি, কিছুটা হলেও তার প্রতিদান দিতে পারি।’