বর্তমানে মারুফ তার স্ত্রীকে নিয়ে নিউইয়র্কে অবস্থান করছেন। শনিবার সন্ধ্যার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় খবর ছড়ায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কাজী মারুফ ও তার স্ত্রী। অল্প সময়ের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ে এই খবর।

এমন কী কাজী মারুফের বাবা নির্মাতা কাজী হায়াতও গণমাধ্যমকে ছেলে ও ছেলের বউয়ের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান। কিন্তু শনিবার রাত সাড়ে ১১টার পরে নিউয়র্ক থেকে কাজী মারুফের এক ঘনিষ্টজন জানান জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন মারুফ ও তার স্ত্রী। তবে এটি করোনাভাইরাসের আক্রমণ নয়। বর্তমানে মারুফের জ্বর সেরেছে। স্ত্রীও সুস্থতার পথে।

এই বিষয়ে কাজী মারুফ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা ভালো আছি। বাবা জ্বরের সংবাদ শুনে উদ্বিগ্ন হয়ে এসব বলেছেন। আমাদের তেমন কিছু হয়নি। যুক্তরাষ্ট্রে এই মুহূর্তে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এর মধ্যেই জ্বর। এই কারণে এমনটা ছড়িয়েছে হয়তো।’

মারুফের সুস্থতার সংবাদ শুনে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন মারুফের প্রিয়জনেরা। সিনেমা পাড়ার অনেকেই কাজী মারুফের সুস্থতার খবর দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০০২ সালে ‘ইতিহাস’ সিনেমায় অভিনয় দিয়ে কাজী মারুফ তার চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন। কাজী হায়াৎ পরিচালিত প্রথম সিনেমাতেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন কাজী মারুফ।

এরপর আরও বেশ কিছু সিনেমা উপহার দিয়েছেন মারুফ। বাবা কাজী হায়াৎ পরিচালিত ছবিগুলোতে শুরুর দিকে বেশ প্রশংসা কুড়িয়ে ছিলেন তিনি।