প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভারতের ক্রিকেট ব্যক্তিত্বরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসছেন সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে। এরই মধ্যে শচিন টেন্ডুলকার ৫০ লাখ, সুরেশ রায়না ৫২ লাখ, মহেন্দ্র সিং ধোনিরা ১ লাখ রুপি অনুদান দিয়েছেন।

এছাড়া দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানের ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি ঘোষণা দিয়েছেন ৫০ লাখ রুপির চাল বিতরণের। এর বাইরেও আরও অনেকে করোনা যুদ্ধে অংশ নিচ্ছেন যে যার মতো করে।

এতদিন ধরে এমন বিক্ষিপ্তভাবে ক্রিকেটার ও ক্রিকেট ব্যক্তিত্বরা সাহায্য-অনুদান দিলেও, এবার আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) পক্ষ থেকেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে করোনা ফান্ডে অনুদান দেয়ার।

শনিবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ খবর নিশ্চিত করা হয়েছে বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে। বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি, সেক্রেটারি জয় শাহ এবং অন্যান্য প্রাদেশিক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের কর্তাব্যক্তিরা মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন করোনা মোকাবিলায় ৫১ কোটি রুপি বা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫৮ কোটি টাকা অনুদান দেয়ার।

এই অর্থ পুরোটাই দেয়া হবে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নাগরিক তহবিলে। জানা গেছে, এই ৫১ কোটি রুপির মধ্যে বিসিসিআই সরাসরি দেবে ৩৫ কোটি এবং ৩২টি রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রত্যেকটি থেকে আসবে ৫০ লাখ রুপি করে। সবমিলিয়ে ৫১ কোটি রুপি তুলে দেয়া হবে মোদির ফান্ডে।

বিসিসিআইয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘করোনাভাইরাসের বিস্তার এখন জনসাধারণের স্বাস্থ্যের জন্য সবচেয়ে বড় ঝুঁকি। এই কঠিন সময়ে বিসিসিআই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মানুষকে সাহায্য করা। বোর্ডের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ফান্ডে অনুদান দেয়া হবে। যা দিয়ে প্রয়োজনীয় কাজ করা যেতে পারে।’