সময়টা আশির দশকের। রোববার ঘড়ির কাঁটায় ১১টা বাজলেই পড়াশোনা ফেলে টেলিভিশনের সামনে বসে পড়ত বাড়ির শিশু-বৃদ্ধরা। একঘণ্টা কারোর মুখে কোনো সাড়া নেই। হা করে ভারতবাসী দূরদর্শন চ্যানেল দেখতো। ওই সময়টায় প্রচার হতো জনপ্রিয় ধারাবাহিক রামায়ন।

সেই খুশির একঘণ্টা আবারও ফিরে পেলো ভারতীয় দর্শক। দেশটিতে চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে জনগণকে ঘরে রাখতে আবার রামায়ণের পুনঃপ্রচার করছে দূরদর্শন।

ভারত সরকার যে কোনো প্রকারেই হোক এই দিনগুলোয় মানুষকে ঘরে রাখতে কোন ত্রুটি রাখতে চায় না কেন্দ্রীয় সরকার। তাই কিছুটা মানুষের আবেদনে সাড়া দিয়ে দূরদর্শনে আবারও সম্প্রচার করা হবে এককালের সেরা মেগা রামানন্দ সাগরের ‘রামায়ন’।

শুক্রবার তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর টুইট করে জানান, ‘ঘরবন্দি মানুষের কথা ভেবেই ২৮ মার্চ থেকে দূরদর্শনে সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত আরও একবার দেখানো শুরু হবে। যাঁরা সকালে দেখতে পাবেন না তাঁদের জন্য পুনঃপ্রচারিত হবে রাত ৯টা থেকে ১০টা।’

এই ধারাবাহিকের হাত ধরে ঘরে ঘরে আরও একবার ঢুকে পড়তে চলেছেন ‘রাম’ অরুণ গোভিল, ‘সীতা’ দীপিকা চিখালিয়া, ‘লক্ষ্মণ’ সুনীল লাহিড়ি। প্রায় ৩৩ বছর পর ফের এই মেগা সম্প্রচার করা হচ্ছে। অনেকেই প্রশংসা করছেন এই সিদ্ধান্তের।

তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তে বিতর্কও শুরু হয়েছে। অনেকের দাবি, দেশের এই পরিস্থিতিতে রামায়ণের পুনঃসম্প্রচার না করে দেশের প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষের মুখে অন্ন তুলে ধরা। তারা যাতে সুষ্ঠুভাবে এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে পারে তার দিকে নজর রাখা।