করোনাভাইরাসের আক্রমণে দিশেহারা পুরো বিশ্ব। ক্রীড়াঙ্গনও পড়ছে বড় ক্ষতির মুখে। যে স্প্যানিশ ক্লাবগুলোতে বছর জুড়ে টাকার ছড়াছড়ি দেখা যায়, তারাও এখন পড়ে গেছে টানাটানিতে।

লিওনেল মেসিদের ক্লাব বার্সেলোনাও এর বাইরে নয়। স্প্যানিশ ক্রীড়া সংবাদপত্র ‘মার্কা’-র প্রতিবেদনে এসেছে, করোনার তাণ্ডবে ইতিমধ্যেই বড় ধরনের ক্ষতির মুখে লা লিগার অন্যতম সফল ক্লাবটি।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৯-২০ মৌসুমে বার্সেলোনার যে বাজেট ছিল, তার ১০ ভাগ লোকসান গুণতে হচ্ছে তাদের। করোনার সংকটে তাদের ক্ষতি হবে কমপক্ষে ১০০ মিলিয়ন ইউরো, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৯৩০ কোটি টাকা।

আর্থিক সংকট মোকাবেলায় বাধ্য হয়েই মেসিদের পারিশ্রমিক কর্তন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষ। বুধবার প্রথম খবর প্রকাশ হয়, অন্তত ৭০ ভাগ পর্যন্ত পারিশ্র্রমিক কেটে নেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে বার্সার বোর্ড অব ডিরেক্টরস।

কিন্তু খেলোয়াড়রা এটা কোনোভাবেই মেনে নিতে রাজি নন। তারা এ নিয়ে প্রতিবাদ করে। যদিও সভাপতি হোসে মারিয়া বার্তেম্যু ঘোষণা দেন, এ নিয়ে খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলবেন এবং তাদেরকে বোঝাতে সক্ষম হবেন।

তবে নতুন করে বার্সেলোনা জানিয়েছে, তারা স্পেনের বিদ্যমান শ্রম আইন অনুসরণ করবে। সেই আইনে যেভাবে অনুমোদন দেয়, সেভাবেই আপাতত খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিক কর্তন করা হবে বলে জানানো হয়েছে বার্সেলোনা থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে।