জাতীয় দলের সাবেক স্ট্রাইকার ওয়াহেদ আহমেদ এখন থাকেন লন্ডনে। দেড় বছরের কন্যা আরিয়া আহমেদকে নিয়ে তাদের সংসার। ব্যবসায়ী এই সাবেক ফুটবলার লন্ডন থেকেই তার নিজ শহর সিলেটের দিনমজুরদের প্রতি সহায়তার হাত।

করোনাভাইরাসে সবকিছু বন্ধ হয়ে যাওয়ায় খেটে খাওয়া মানুষ যারা এখন চরম খাদ্য সংকটে এমন ১৫০ পরিবারকে তিনি খাদ্যসামগ্রী সরবরাহ করেছেন। যাতে করে এই সংকটময় পরিস্থিতিতে কিছুটা সাহায্য হয় সেসব পরিবারের।

লন্ডন থেকে ফোনে জাতীয় দলের সাবেক এ স্টাইকার বলেন, ‘মানুষের এমন দুর্দিনে যে যার অবস্থান থেকে পাশে দাঁড়ানো উচিত। আমি আমার সামর্থ্য অনুযায়ী আমার শহরের একটি এলাকার মানুষকে সহায়তা করার চেষ্টা করছি। সিলেট সদরের শিবগঞ্জ গোলাপপাড়া কলোনীর গরীব মানুষদের এ সহায়তা প্রদান করেছেন আমার পক্ষ থেকে আমার ভাইরা। আমরা পুরো পরিবার মিলেই যতটুকু পেরেছি করেছি।’

চাল, ডাল, আলু, পেয়াজ, রসুন, সাবান ও তেল- এই ৭ ধরনের সামগ্রী একটি পরিবারকে দিয়েছেন সাবেক এ ফুটবলার। তার বিশ্বাস এতে এক একটি পরিবারের কয়েকদিনের খাবার হয়ে যাবে। তিনি সামার্থ্যবানদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

ওয়াহেদ আহমেদ বলেছেন, ‘আমি এগিয়ে এসেছি। আপনিও এগিয়ে আসুন। আমরা সবাই এগিয়ে আসলে, হাসবে গোটা বাংলাদেশ। দূর হবে দুর্যোগ। যার যার জায়গা থেকে সবাই একসাথে এগিয়ে আসলে বাংলাদেশের কেউ না খেয়ে থাকবে না ইনশাআল্লাহ।’