করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত সংকটময় পরিস্থিতি মোকাবিলায় এবার এগিয়ে এলো ইংল্যান্ডের ঐতিহাসিক লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড। ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত এই স্টেডিয়ামটিকে প্রয়োজনে ব্যবহার করা হবে করোনা হাসপাতাল হিসেবে।

প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন খোদ ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। স্বাভাবিকভাবেই লকডাউনের মধ্যে রয়েছে পুরো যুক্তরাজ্য। এমতাবস্থায় করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এরই মধ্যে নিজেদের নাম লিখিয়ে ফেলেছে লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড।

মূলত লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড এবং মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব একসঙ্গে মিলে কাজ করে যাচ্ছে এ করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায়। এরই মধ্যে মেডিকেল স্টাফদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে লর্ডসের পার্কিং স্পেস এবং লন্ডনের অভুক্ত মানুষদের খাবার বিতরণ করা হচ্ছে এমসিসির পক্ষ থেকে।

আনুষ্ঠানিক এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রশাসন চাইলে যেকোনো কাজে ব্যবহার করতে পারবে ক্রিকেটের তীর্থস্থানখ্যাত এই মাঠটিকে। অতি জরুরি পরিস্থতি এলে হাসপাতাল বানিয়ে ফেলা হবে লর্ডসকে। তার আগপর্যন্ত লন্ডনের হাসপাতালে কাজ করা ডাক্তার-নার্সদের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা দেয়া হয়েছে মাঠের সুবিশাল পার্কিং স্পেস।

বিজ্ঞপ্তিতে তারা লিখেছে, ‘ওয়েলিংটন, ইউনিভার্সিটি কলেজ, সেইন্ট জন এবং সেইন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের স্টাফদের জন্য আমরা এরই মধ্যে ৭৫টি পার্কিং স্পেস দিয়েছি। এছাড়া ওয়েলিংটন হাসপাতালের জন্য স্টোরেজ এরিয়াও দেয়া হয়েছে। সিটি হারভেস্ট লন্ডনে খাদ্য সরবরাহ করছে এমসিসি। যাতে করে ক্ষুধার্তদের মুখে খাবার দেয়া যায়।’

তারা আরও জানিয়েছে, ‘আমরা স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে খুব কাছ থেকে কাজ করছি। এই সংকটময় সময়ে যথাসম্ভব সবকিছুই করার জন্য আমাদের পক্ষ থেকে হাসপাতাল ও সংগঠকদের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তারা যেকোনো কাজে লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড ব্যবহার করতে পারবে।’