দাবানলের মতো বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে দেশে লকডাউন চলছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সকলকে বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। ফলে জীবন বাঁচাতে বাধ্য হয়েই দিন-রাত আমাদের ঘরবন্দি হয়ে থাকতে হচ্ছে। তাই বাড়িতেই চলছে ভুরিভোজ।

এর মধ্যে যেতে হচ্ছে না কর্মক্ষেত্রেও, তাই কাউকে কাউকে দেখা যাচ্ছে, বাড়িতে মাছ, মাংসের নানা পদের রান্না করে খেতে। কিন্তু এ ব্যাপারে চিকিৎসকেরা কী বলছেন?

তারা বলছেন, সংকটপূর্ণ এই সময়ে এসব করলে চলবে না। বরং যতটা সম্ভব হাল্কা খাবারদাবার খেতে হবে। যাতে শরীর না গরমে হয়ে ওঠে।

ভারতের বিশিষ্ট চিকিৎসক সুমিত সেনগুপ্ত ও অরিন্দম বিশ্বাস বলেন, এই সময় বাড়ির রান্নাবান্নায় মশলাপাতির ব্যবহার যতটা কম করা যায়, ততই মঙ্গল। বরং এখন শাকসবজি, স্যালাড, টক দই এসব অনেক বেশি করে খেতে হবে। কারণ, এসব শরীরকে ভেতর থেকে ঠান্ডা রাখে। তবে ফ্রিজের পানি একেবারেই এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। কারণ এতে শরীরের ওপর বিপরীত প্রভাব হতে পারে।

সুমিত সেনগুপ্ত বলেন, এই সময় দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকাও উচিত নয়। তাই প্রতি চার ঘণ্টা পরপর কিছু না কিছু খাবেন। তবে বারে বারে খেলেও হাল্কা খাবারদাবারই খাবেন।