করোনাভাইরাস শুধু মৃত্যু শঙ্কার কারণই নয়। করোনার কারণে অফিস, আদালত, হোটেল, রেস্তোরা- সবই বন্ধ। খেটে খাওয়া দিনমজুর ও দিন এনে দিন খাওয়া মানুষদের নাভিশ্বাস। এরকম অবস্থায় কেউ কেউ এক মাসের বাড়ি ভাড়াও মওকুফ করে দিয়েছেন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও এরই মধ্যে জাতীয় দলের চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়দের বাইরে পুরুষ ও নারী ক্রিকেটারদের অর্থ সাহায্য করেছে। বিসিবির বেতন কাঠামোর বাইরে থাকা খেলোয়াড়দের এককালীন ৩০ হাজার টাকা করে দেয়ার ঘোষণা এসেছে বোর্ড থেকে। একইভাবে নারী ক্রিকেটারদের জন্যও এককালীন ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হবে।

এর বাইরে বিসিবি এবার আরও একটি মানবিক সাহায্য সহযোগিতার উদ্যোগ নিয়েছে। মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামসহ বিভিন্ন স্টেডিয়ামের মাঠকর্মী, বোর্ডের পিয়ন, অফিস স্টাফ ও পরচ্ছন্নতা কর্মীসহ মোট ৩০০ কর্মচারীকে এককালীন অর্থ সাহায্য দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আজ (শুক্রবার) সকালে জাগোনিউজের সঙ্গে আলাপে খোদ বিসিবি সিইও নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন দিয়েছেন এ তথ্য। কত টাকা করে দেয়া হচ্ছে একেকজনকে? এ প্রশ্নের জবাবে বিসিবি সিইও নির্দিষ্ট পরিমাণের কথা জানাননি।

তিনি বলেন, ‘এককালীন একটা অর্থ দেয়া হবে। এখন পর্যন্ত প্রকৃত অর্থের পরিমাণ ঠিক করা হয়নি। তবে মাঠকর্মী, বিসিবি স্টাফ ও পিয়ন, অফিস স্টাফ এবং পরিচ্ছন্নতা কর্মীসহ ৩০০ স্টাফকে আমরা মাসিক বেতন নিয়মিত দেয়ার পাশাপাশি এককালীন কিছু অর্থ সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। খুব শীঘ্রই এটা দেয়া হবে।’

নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, ঐ ৩০০ জনের সবাইকে বেতনের বাইরেও অন্তত ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা করে দেয়া হবে।