সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিংগাইরে ফরিদপুর থেকে তাবলীগ জামাতে আসা আব্দুল বাকী নামের ষাটোর্ধ এক ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি আইইডিসিআরের তত্ত্বাবধানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনায় সিংগাইর পৌর এলাকা লকডাউন ঘোষণা করেছেন স্থানীয় প্রশাসন। আজ রবিবার (৫ এপ্রিল) সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুনা লায়লা লকডাউনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তি ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার মধ্যকাইচাল গ্রামের বাসিন্দা। গত ২৪ মার্চ ১২ সদস্যের একটি তাবলীগ জামাতের দল পৌর এলাকার আজিমপুর পশ্চিমপাড়া বাইতুল মামু‘র ও মারকাযুল মা‘আরফি ওয়াদ-দা-ওয়াহ জামে মসজিদে এসেছিলেন। এদের মধ্যে আব্দুল বাকীর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে এক আত্মীয়ের সাথে ঢাকায় আইইডিসিআরে গিয়ে পরিক্ষা করান। এতে তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে এবং সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছে। ইউএনও আরো জানান, গত শনিবার রাত ১২ টারদিকে আইইডিসিআর থেকে আব্দুল বাকীর করোনায় আক্রান্তের খবর জানানো হয়।


এদিকে এ ঘটনার পর আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে থাকা অপর ১১ জন এবং স্থানীয় ৬ জনকে হোম কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। আতংক ছড়িয়ে পড়েছে পুরো উপজেলায়। পৌর এলাকা লকডাউন দেয়া হয়েছে। স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এ এলাকায় তাবলীগ জামাত আসায় এমন ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
সিংগাইর থানার ওসি আব্দুস সাত্তার মিয়া বলেন, পৌর এলাকার প্রবেশের বিভিন্ন সড়ক পুলিশ পাহাড়ায় রাখা হয়েছে।