করোনাভাইরাসের মধ্যেই প্রথম বড় ক্লাব হিসেবে দলের অনুশীলন শুরু করে দিয়েছে জার্মানির চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ। গত সোমবার থেকে নিজেদের অনুশীলন মাঠ স্যাবেমের স্ট্র্যাবেতে ছোট ছোট গ্রুপে ভাগ হয়ে ‘স্পর্শবিহীন’ভাবে চলছে বায়ার্নের অনুশীলন।

জার্মানিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুহার খুবই কম হওয়ায় বায়ার্নের এই সতর্ক-সাবধানী অনুশীলন নিয়ে দ্বিমত প্রকাশ করেননি কেউ। তবু চিন্তার শেষ নেই দলের অন্যতম সদস্য থিয়াগো আলকান্তারার বিশ্বকাপজয়ী বাবা মাজিনহোর।

১৯৯৪ সালে ব্রাজিলের চতুর্থ বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন মাজিনহো। ফলে তিনি জানেন মাঠের সঙ্গে ফুটবলারদের সম্পর্ক কতটা। তবু বর্তমান পরিস্থিতিতে মাঠে গিয়ে ছেলের অনুশীলন নিয়ে বেশ চিন্তিতই মাজিনহো।

বায়ার্নের এই অনুশীলনের ব্যাপারে থিয়াগোর বাবা বলেন, ‘করোনার মহামারী অবস্থায় ফুটবল খেলা অবশ্যই চিন্তার বিষয়। কারণ এটা খুবই জটিল পরিস্থিতি, যা আমরা সবাই দেখছি। জার্মানি এদিক থেকে বেশ এগিয়ে যাচ্ছে, গ্রুপ ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে।’

দলের অনুশীলন শুরু হলেও, সবকিছুর ব্যাপারে আরও বেশি সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়েছেন মাজিনহো। তিনি বলেন, ‘সবকিছুর ব্যাপারে খুব সচেতন থাকতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, খেলোয়াড়দের সবধরনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেই এটি (অনুশীলন) করছে বায়ার্ন। আমার ছেলেরও এখানে অনুশীলন করতে হবে এবং নিজেকে আরও পরিণত করতে হবে।’