ভারতে চলছে লকডাউন। বাড়ির বাইরে পা রাখায় নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে দেশটিতে। নানাভাবে দেশটির পুলিশ মানুষকে সচেতন করে যাচ্ছেন।

তারা বিনোদনও দিচ্ছেন মানুষদের। সবার মানসিক স্বাস্থ্য ভাল রাখতে হাতে নিচ্ছেন নানা রকম কর্মসূচিও।

এই যেমন মুম্বাইবাসীদের সাবধানবাণী দিতে ফিল্মি কায়দা অবলম্বন করছে মুম্বাই পুলিশ। কখনো অজয় দেবগন, রাজকুমার রাও তো কখনো আবার শাহরুখের সিনেমার দৃশ্য-সংলাপকে হাতিয়ার করে তুলছে সচেতনতা প্রচার অভিযানে।

করোনা মোকাবিলায় সচেতনতা প্রচারে এবার শাহরুখ খানের ‘ম্যায় হু না’ সিনেমার একটি দৃশ্যকেই বেছে নিলো মুম্বাই পুলিশ। মরণঘাতী এ ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে মাস্ক কতটা প্রয়োজনীয় কিংবা কেন এই সময়ে মাস্ক পরে বাইরে পা রাখা আবশ্যক, আমচি মুম্বইবাসীদের সেই বার্তা দিতেই পুলিশের তরফে এমন অভিনব পন্থা গ্রহণ করা হল।

‘ম্যায় হু না’ ছবির সেই দৃশ্যে দেখা যায় সতীশ শাহ অভিনীত প্রফেসর রাসাইয়ের কথা বলার সময়ে থুতু ছেটার ভয়ে রামপ্রসাদ শর্মা ওরফে শাহরুখকে পুরো ৩৬০ ডিগ্রি হয়ে এক স্টান্ট করতে হয়েছিল। সিনেমার সেই মজাদার দৃশ্য শেয়ার করেই মুম্বাই পুলিশ টুইটারে লিখেছে, ‘শাহরুখ এখন আর আপনার এরকম স্টান্ট করার প্রয়োজন পড়বে না। মাস্ক আছে তো!’

উল্লেখ্য করোনার সংক্রমণ রুখতে হাঁচি-কাশি এড়ানোর জন্য নানা পন্থা অবলম্বন করার নির্দেশ রয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইনসে। কারণ, হাঁচি-কাশি থেকে পাশের মানুষটির থেকে সংক্রমণ ছড়াতে পারে। তাই সাবধানতা অবলম্বনের জন্য কয়েক মিটার দূরত্ব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাই এই সময়ে মাস্ক পরাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে অনেক ক্ষেত্রেই।

মাস্ক পরা কেন আবশ্যক? জনসাধারণের মধ্যে সেই বার্তা ছড়িয়ে দিতেই মুম্বাই পুলিশ শাহরুখ খানের ‘ম্যায় হু না’ সিনেমার দৃশ্যটিকে হাতিয়ার করে তুলেছে। পুলিশের এই আইডিয়া দারুণভাবে গ্রহণ করেছে মুম্বাইবাসী।