মে মাসের শেষে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিতব্য ডি-৮ শীর্ষ সম্মেলন পেছানোর অনুরোধ জানিয়েছে ঢাকা। সার্বিক প্রস্তুতি থাকলেও করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে এই সম্মেলন পিছিয়ে দেয়ার জন্য বর্তমান চেয়ারম্যান তুরস্ককে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ।

সোমবার (১৩ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়, সম্প্রতি তুরস্ককে এ বিষয়ে একটি চিঠি দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। চিঠিতে তিনি শীর্ষ সম্মেলনের তারিখ পিছিয়ে দেয়ার জন্য প্রস্তাব করেছেন।

আগামী ৩০-৩১ মে ডি-৮-এর শীর্ষ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল ঢাকায়। এজন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতিও নেয়া ছিল। বেশ কয়েকটি দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধান অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন বলে আনুষ্ঠানিক ও অনানুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছিলেনও বাংলাদেশকে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে ওই অনুষ্ঠান করা সম্ভব হচ্ছে না।

ডি-৮-এর সদস্য রাষ্ট্রগুলো হলো-বাংলাদেশ, মিশর, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান ও তুরস্ক।

ছয় মাস আগে ডি-৮-এর স্বাস্থ্য ও সামাজিক সুরক্ষা প্রোগ্রামের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়। ওই কার্যক্রমের আওতায় আটটি দেশের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা কীভাবে কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবিলা করা যায়, সেটি নিয়ে আগামী বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) অনলাইনে বৈঠক করবেন।

বাংলাদেশের নেয়া এই উদ্যোগে দেশগুলো কীভাবে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করছেন সে বিষয়ে এবং তাদের কার্যকর ব্যবস্থাগুলো সম্পর্কে একে অপরকে অবহিত করবেন।