স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২৬৬ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৭৫ জনে এবং করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্ত ১৮৩৮ জন। আজ শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনামন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি আরো জানান হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২১৯০টি। এ সময়ে আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৯ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা ৫৮ জন।

ঢাকা বিভাগের মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ও নারায়ণগঞ্জে সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যায় এরপরই এগিয়ে আছে চট্টগ্রাম বিভাগ। করোনায় জেলাভিত্তিক আক্রান্তের সংখ্যা হলো- ঢাকা সিটিতে ৬০৮, গাজীপুর ৯৮, কিশোরগঞ্জে ৩৩, মাদারীপুরে ২৩, মানিকগঞ্জে ৫, নারায়ণগঞ্জে ২৫৫, মুন্সীগঞ্জে ২৬, নরসিংদীতে ৬৪, রাজবাড়ী ৭, ফরিদপুরে ২, টাঙ্গাইলে ৯, শরীয়তপুরে ৬, গোপালগঞ্জে ১৭ জন শনাক্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন >> ভয়াবহ খাদ্যসঙ্কটে পড়তে যাচ্ছে দরিদ্র মানুষ

এদিকে চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম জেলায় ৩৬, কক্সবাজারে ১, কুমিল্লায় ১৪, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৮, লক্ষ্মীপুরে ১, নোয়াখালীতে ২, চাঁদপুরে ৭ জন সহ মোট ৬৯ জন আক্রান্ত হয়েছে।

রংপুরের গাইবান্ধায় ১২, নীলফামারীতে ৬, লালমনিরহাটে ২, কুড়িগ্রামে ২, দিনাজপুরে ৮, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩, রংপুর জেলায় ৩ জন সহ মোট ৩৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। ময়মনসিংহ বিভাগের জামালপুরে ১২, নেত্রকোনায় ৬, শেরপুরে ৫, ময়মনসিংহ জেলায় ৯ জন সহ মোট ৩২ জন।

আরও পড়ুন >> বাংলামোটরে বিপুল পরিমাণ করোনার চিকিৎসাসামগ্রী মজুত, গ্রেফতার ৪

বরিশাল বিভাগের বরিশাল জেলায় ১২, বরগুনায় ৪, পটুয়াখালীতে ২, পিরোজপুরে ৪, ঝালকাঠিতে ৩ জন সহ মোট ২৫ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। সিলেটের মৌলভীবাজারে ২, সুনামগঞ্জে ১, হবিগঞ্জে ১, সিলেট জেলায় ৩ জন আক্রান্ত হয়েছে।

এছাড়াও খুলনা, নড়াইল, চুয়াডাঙ্গায় একজন করে মোট তিনজন ও রাজশাহীতে তিনজন আক্রান্ত রোগীর খবর পাওয়া গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট দুই হাজার ১৯০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নতুন ২৬৬ জন আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে নতুন ১৫ জনের। এই সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৯ জন।