ইউএবি : নওগাঁয় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকারের সংস্পর্শে আসায় দুই সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ জেলা সিভিল সার্জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। শনিবার বিকালে ডেপুটি সিভিল সার্জন মঞ্জুর মোরশেদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সংস্পর্শে আসাদের শনিবার বিকাল থেকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার অনুরোধ করা হয়েছে। আগামী ৪ মে তাদের সবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

মঞ্জুর মোরশেদ জানান, নওগাঁ-২ আসনের আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার গত ২৭ এপ্রিল সকালে করোনা সংকট মোকাবিলা নিয়ে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্সে যোগদান করেন।

এ সময় তার সংস্পর্শে আসেন সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মালেক, নওগাঁ-৬ আসনের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম, নওগাঁ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম, জেলা প্রশাসক হারুন অর-রশিদ, পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান মিয়া ও জেলা সিভিল সার্জন আখতারুজ্জামান আলাল।

আরও পড়ুন >> সাগরে লুঘুচাপ, বজ্রসহ বৃষ্টি হবে আরো কয়েকদিন

এরপর শহীদুজ্জামান সরকার ২৮ এপ্রিল নিজ নির্বাচনী এলাকা থেকে ঢাকায় যান এবং সরকারি ন্যাম ভবনে (সংসদ সদস্য ভবন) ওঠেন। পরে তার জ্বর দেখা দেয় এবং সেই সাথে হালকা কাশি হচ্ছিল। তখন রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়। শুক্রবার বিকালে আইইডিসিআর থেকে যে রিপোর্ট পাঠানো হয় তাতে তিনি করোনাভাইরাস পজেটিভ বলে শনাক্ত হন। তিনি প্রথম কোনো সংসদ সদস্য হিসেবে দেশে করোনায় আক্রান্ত হলেন।