করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারে গবেষণা চলছে বিশ্বজুড়ে। তবে এই প্রতিষেধক কবে আসবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। করোনাভাইরাস থেকে বিশ্ববাসীকে বাঁচাতে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। তারই পরিপ্রেক্ষিতে একদল বিজ্ঞানী বিশ্ব করোনামুক্ত হওয়ার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করেছেন। আন্দাজে নয়, রীতিমতো কাগজে কলমে হিসেব করে তারা জানিয়েছেন এখবর।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত ব্যক্তিদের তথ্য দিয়ে সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি অ্যান্ড ডিজাইনের গবেষকরা একটি গাণিতিক মডেল তৈরি করেছে যা ব্যবহার করে বিভিন্ন দেশ কবে করোনামুক্ত হবে তার পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মেট্রো’র শনিবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বিশ্ব কবে   করোনামুক্ত হবে, তার দিন-তারিখ জানানো হয়।

গণনা পর্যবেক্ষণ পদ্ধতিতে তৈরি ওই গাণিতিক মডেল অনুযায়ী ২৭ আগস্ট করোনামুক্ত হবে যুক্তরাজ্য। এরপর ২৮ জুন সিঙ্গাপুর আর ২০ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্র করোনাভাইরাস মুক্ত হবে বলে আভাস দেয়া হয়েছে। এই পূর্বাভাসে জানানো হয়, আগামী ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে পুরো বিশ্ব থেকে ১০০ ভাগ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে মহামারি করোনাভাইরাস।

এই পূর্বাভাসটি প্রকাশ পায় গত ৩০ এপ্রিল। তবে ভবিষ্যদ্বাণী করা এই বিজ্ঞানীরা অবশ্য বলেছেন যে তারিখগুলো সুনির্দিষ্ট নয়, পরিবর্তন হতে পারে। ভিন্ন ভিন্ন দেশের বাস্তবতা ও পদক্ষপের কারণে তারিখ বদলাতেও পারে। এই পদক্ষপের মধ্যে রয়েছে বিধিনিষেধ জোরদারকরণ ও শিথিলকরণসহ এবং লকডাউনের স্থায়িত্ব।

এদিকে ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানির সংখ্যা ২৪ মে, রবিবার পর্যন্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৪৪ হাজার ২০৬ জনে। আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ লাখ ৭ হাজার ৪১৪ জন।