বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের (আইসিইউ) বেডের ভাড়া অস্বাভাবিক রাখা হলে সে বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে অভিযোগ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে সেসব অভিযোগ তদন্ত করতে দুদককে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এছাড়াও ক্যানসারসহ জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীদের কোভিট থাকলে ৩৬-৪৮ ঘণ্টার মধ্যে টেস্ট করে চিকিৎসা অব্যাহত রাখা, ১০ কার্যদিবসের মধ্যে অক্সিজেনের মূল্য নির্ধারণ এবং বিনা চিকিৎসার বিষয়ে অভিযোগ দায়েরের জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনলাইনে অভিযোগ নেওয়ার পদ্ধতি চালুর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে এসব নির্দেশনা প্রতিপালন করতে বলা হয়েছে।

করোনাকালে স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত পৃথক কয়েকটি রিটের শুনানি নিয়ে সোমবার (৬ জুলাই) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইয়াদিয়া জামান, অনিক আর হক, মাহফুজুর রহমান মিলন, এ এম জামিউল হক ফয়সাল, নাজমুল হুদা, মোহাম্মাদ মেহেদী হাসান এবং ব্যারিস্টার একেএম এহসানুর রহমান। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার।
গত ১৩ জুন ও এর আগে রোগীদের চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত পাঠানোর ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনা চেয়ে, আইসিইউ বেড মনিটরিং ও অক্সিজেনের প্রয়োজনীয় সরবরাহ এবং মূল্য নির্ধারণ চেয়ে পৃথক পৃথক রিট করা হয়। ১৫ জুন এসব রিটের একত্রে শুনানি নিয়ে ১১ দফা নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট।
হাইকোর্টের এসব নির্দেশনার মধ্যে একটিতে করোনাকালে আইসিউ বেড মনিটরিং ও মূল্য নিয়ন্ত্রণ, অক্সিজেন সরবরাহ ও মূল্য নিয়ন্ত্রণ এবং রোগীদের ফেরত না পাঠিয়ে সেবা নিশ্চিত করার বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়। সেই নির্দেশের ধারাবাহিকতায় গত ৩০ জুন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর পৃথক পৃথক প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করে।