টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়ার পরই বোঝা গিয়েছিল এবার আইপিএল নিয়ে জোরেশোরে প্রস্তুতি শুরু করবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। এখন হচ্ছেও তাই। সরকারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা দিচ্ছে না আয়োজকরা। তবে ভেতরে ভেতরে ঠিকই সব গুছিয়ে এনেছে তারা।

যার অংশ হিসেবে শুরুতেই আরব আমিরাতকে এবারের আইপিএলের ভেন্যু হিসেবে ঠিক করেছে বিসিসিআই। সে ধারাবাহিকতায় এবার আইপিএলের সূচিও প্রস্তুত করে ফেলা হয়েছে। যা মোতাবেক আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর হবে আইপিএলের নতুন আসরের প্রথম ম্যাচ। আর জমজমাট এ আসরের পর্দা নামবে নভেম্বরের ৮ তারিখে।

আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল আসন্ন সপ্তাহে বিস্তারিত এক বৈঠকের মাধ্যমে এসব সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবে। তার আগেই ভারতীয় সংবাদসংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া (পিটিআই) জানিয়েছে আইপিএলের সূচি চূড়ান্ত হওয়ার খবর। এরই মধ্যে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকেও জানিয়ে দেয়া হয়েছে নতুন এই সূচি।

বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা পিটিআইকে বলেছেন, ‘এখনও পর্যন্ত যা ঠিক করা হয়েছে যে, আইপিএল শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর (শনিবার) এবং ফাইনাল ম্যাচ হবে ৮ নভেম্বর (রোববার, ভারতের সাপ্তাহিক ছুটির দিন)। সবমিলিয়ে ৫১ দিনের আয়োজন। যা কি না ফ্র্যাঞ্চাইজি এবং অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের জন্য বেশ ভালো হবে।’

এদিকে আইপিএলের পরপরই অস্ট্রেলিয়া সফরে চলে যাবে ভারতীয় ক্রিকেট দল। ব্রিসবেনে ৩ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে দুই দলের চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। মাঠের খেলা শুরুর আগে ভারতীয় দল যেন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার যথেষ্ঠ সময় পায়, তাই আইপিএল বেশি লম্বা না করে ৮ নভেম্বরেই শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সেই কর্মকর্তা আরও বলেছেন, ‘অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে সে দেশের সরকারের আইন মোতাবেক ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবে ভারতীয় দল। আইপিএলের ৫১ দিনের সূচির ভালো দিক হচ্ছে, এতে করে একদিনে খুব বেশি জোড়া ম্যাচ থাকবে না। আগের মতোই পাঁচটি জোড়া ম্যাচ আয়োজিত হবে।’

ধারণা করা হচ্ছে সেপ্টেম্বরের শেষদিকে হতে যাওয়া এই আইপিএলে অংশ নেয়ার জন্য আগস্টের ২০ তারিখেই অনুশীলন শুরু করে দেবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। যাতে করে অন্তত চার সপ্তাহ নিজেদের মতো করে অনুশীলন ও আনুষঙ্গিক গোছানোর সময় পায় তারা।