স্পোর্টস ডেস্ক:সব ঠিকঠাক থাকলে এতদিনে পাকিস্তান সুপার লিগের ২০২০ সালের আসরের চ্যাম্পিয়ন দলের নাম জানা থাকত সবার। গত মার্চেই পর্দা নামার কথা ছিল পিএসএলের। যথাসময়ে শেষ হয়েছিল প্রথম পর্বের খেলা। কিন্তু প্লে-অফের চার ম্যাচ বাকি থাকতে করোনাভাইরাসের জন্য সতর্কতাস্বরুপ বন্ধ করে দেয়া হয় খেলা।প্রায় ৮ মাস পিছিয়ে এখন চলতি নভেম্বরে হবে প্লে-অফ রাউন্ডের চার ম্যাচ। টুর্নামেন্টের শুরুতে পিএসএলে ছিল না বাংলাদেশের কেউ। তবে এবার করোনায় পিছিয়ে যাওয়া প্লে-অফ পর্বে ডাক পেয়েছেন দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া প্লে-অফ পর্বে খেলবেন বাংলাদেশের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক|অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ক্রিস লিনের বদলে তামিমকে দলে নিয়েছে লাহোর কালান্দার্স। দল পাওয়ার পর অনুভূতি জানিয়ে তামিম বলেন, ‘পিএসএলে আবারও খেলার জন্য আমার তর সইছে না। লাহোর কালান্দার্স টুর্নামেন্ট জুড়ে দুর্দান্ত খেলেছে এবং আমি আমাদের দলটিকে শিরোপা জয় করতে অবদান রাখতে চাই।’অপরদিকে মুলতান সুলতানসে ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলির স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিনি দল পাওয়া প্রসঙ্গে বলেন, ‘পিএসএলে সুযোগ পাওয়া একটা সম্মানের ব্যাপার। এই বছর ক্রিকেট খেলা একেবারে অন্যরকমভাবে এগোচ্ছে। আমি আশা করছি আমাদের দলের সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটানোর মতো খেলা উপহার দিতে পারব।করাচিতে আগামী ১৪, ১৫ ও ১৭ নভেম্বর হবে পিএসএলের বাকি থাকা প্লে-অফ ম্যাচগুলো। প্রথমদিন অর্থাৎ ১৪ তারিখে হবে এলিমিনেটর-১ (লাহোর বনাম পেশোয়ার) ও কোয়ালিফায়ার-১ (মুলতান বনাম করাচি) ম্যাচ। পরদিন হবে কোয়ালিফায়ার-১ পরাজিত ও এলিমিনেটর-১ জয়ী দলের মধ্যকার দ্বিতীয় এলিমিনেটর ম্যাচ। পরে ১৭ নভেম্বর ফাইনাল দিয়ে শেষ হবে এবারের পিএসএল।শেষ চার ম্যাচের জন্য তামিম ও মাহমুদউল্লাহ দল পেলেও, সংশয় থেকেই যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের অনাপত্তিপত্রের (এনওসি) ব্যাপারে। কেননা এর আগে জাতীয় দলের দায়িত্ব থাকা মোস্তাফিজুর রহমানকে আইপিএল ও দেশেই ঘরোয়া টুর্নামেন্ট থাকায় কোনো খেলোয়াড়কেই এলপিএল (লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ) খেলার অনুমতি দেয়নি বিসিবি।তাহলে কি এবার তামিম-মাহমুদউল্লাহর পিএসএল খেলাও আটকে যাবে? উত্তর হচ্ছে, না। কারণে যে চারদিনের মধ্যে পিএসএলের ম্যাচগুলো হবে, তখন জাতীয় দল বা ঘরোয়া ক্রিকেটে কোনো সূচি নেই। তাই এ দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে অনাপত্তিপত্র দিয়ে দেবে বিসিবি- এমনটাই জানিয়েছেন বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান।ক্রিকবাজকে তিনি বলেন, ‘আমরা তাদেরকে (তামিম-মাহমুদউল্লাহ) অনাপত্তিপত্র দিয়ে দেবো কারণ এটি আমাদের ঘরোয়া টুর্নামেন্টের সঙ্গে সূচিতে মিলছে না। আমরা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এখন সেটি নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহের আগে করা সম্ভব নয়। তাই তারা পিএসএল খেলতে পারবে।’এদিকে তামিম-মাহমুদউল্লাহকে পিএসএল খেলতে যেতে দিলে, আবারও কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে সরকারের বিশেষ অনুমতি নিতে হবে বিসিবিকে। কেননা পিএসএল শেষ করে দেশে ফেরার পর যদি ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে তামিম-মাহমুদউল্লাহকে, তাহলে নিশ্চিতভাবেই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের বড় অংশ মিস করবেন তারা।