বিনোদন ডেস্ক:জিরো থেকে হিরো হয়ে উঠা শক্তিমান বলিউড অভিনেতার নাম শাহরুখ। যে জীবনের উত্থানের পরতে পরতে আছে সংগ্রাম, অবর্ণনীয় যাতনার গল্প। সেসব বিভিন্ন সময় নিজেই বলেছেন শাহরুখ। সঙ্গত কারণেই বলিউডে প্রেরণা যোগানো নায়কদের মধ্যে অন্যতম হিন্দি সিনেমার রঙিন ‘দেবদাস’।

আজ আর ৫৫তম জন্মদিন। ১৯৬৫ সালের ২ নভেম্বর ভারতের নয়া দিল্লিতে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন শাহরুখ। প্রিয় তারকার বিশেষ দিনটি পালন করতে আয়োজনের কমতি রাখেন না কোটি কোটি ভক্তরা। তারা উদগ্রীব হয়ে থাকেন শাহরুখের জীবনের অজানা সব তথ্যের জন্য।

তেমনি একটি তথ্য অনেকেরই অজানা। যা নিজে শাহরুখ চলতি বছরের এপ্রিলে প্রকাশ করেছিলেন। এক সাক্ষাৎকারকালে তিনি জানিয়েছেন, তিনবার বিয়ে করেছেন তিনি। একটু অবাক হলেন তো? গল্পটা হল, শাহরুখ ও গৌরির বিয়েটা প্রথমে কেউ-ই মেনে নিতে পারেননি। একজন মুসলিম ও একজন হিন্দু হওয়ায় এই বিয়েতে মোটেও রাজি ছিলেন গৌরীর পরিবারও। তাই প্রথমে রেজিস্ট্রি করে বিয়ে করেন তারা।

এরপরে নিকাহ অর্থাৎ ইসলাম মতে বিয়ে ও পরেরটা একেবারে শিখমতে পঞ্জাবি ওয়েডিং। গৌরিরই নাকি ইচ্ছা ছিল এরকম বিয়ে করার, আর সেই ইচ্ছাকেই শাহরুখ পূরণ করলেন নিজের মতো করে।

ব্যক্তি জীবনে তিনি তিন সন্তানের জনক। তার স্ত্রী গৌরি খান। ভালোবেসে তাকে ১৯৯১ সালে বিয়ে করেছিলেন শাহরুখ। মুসলিম শাহরুখ ও হিন্দু ধর্মের গৌরির দাম্পত্যে ধর্ম কোনোদিনই প্রতিবন্ধক হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

বলিউডের রোমান্সের রাজা বলা হয় শাহরুখকে। অথচ ব্যক্তিজীবনে তিনি স্ত্রীর কাছে বিশ্বস্ত একজন স্বামী। তার সঙ্গে অনেক নায়িকার সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন ছড়ালেও সেগুলো কখনো সত্যি হয়নি। তাই গৌরি চোখ বন্ধ করে ভরসা করেছেন শাহরুখ খানের উপর। তিনিও স্বামীর সকল বিপদে পাশে ছিলেন বন্ধুর মতো। সেই কৃতজ্ঞতা বারবার স্বীকার করেছেন কিং খান, বিভিন্ন অনুষ্ঠান, সভা-সেমিনারে।