রাজধানী ঢাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গত এক সপ্তাহে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে ৮৫ জন ভর্তি হয়েছেন। শনিবার (৭ নভেম্বর) পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন অর্ধশতাধিক ডেঙ্গু রোগী।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হন। তাদের মধ্যে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনজন এবং বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ১২ জন রয়েছেন।

চলতি বছর বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে- এমন রোগী সন্দেহে নমুনা পরীক্ষার জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়। শনিবার পর্যন্ত আইইডিসিআর দুটি মৃত্যুর পর্যালোচনা করে চলতি বছর ডেঙ্গুতে একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুম সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ৭ নভেম্বর পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ৫২ জনের মধ্যে ঢাকা শিশু হাসপাতালে দুইজন, বিজিবি হাসপাতালে তিনজন, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে তিনজন, সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতালে নয়জন এবং বেসরকারি ক্লিনিক ও হাসপাতালে ৪৩ জন ভর্তি ছিলেন।

চিকিৎসকরা বলছেন, জ্বর হলে মশারি ব্যবহার করতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া যাবে না। কিছু না খেতে পারলে এবং বমি হলে স্যালাইন খেতে দিতে হবে। শরীর ব্যথা হলে কোনোভাবেই ব্যথার ওষুধ খাওয়ানো যাবে না। শুধু জ্বরের ওষুধ প্যারাসিটামল খেতে হবে এবং দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।