জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক:ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেছেন, ‘বিদ্যমান পরিস্থিতিতে ভোটের পরিবেশ নেই। আমরা শুনেছি, আওয়ামী লীগ বিভিন্ন থানা থেকে লোক এনে ভোট কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করছে। তারপরেও জনগণ আমাদের সঙ্গে থাকায় আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি। আশা করি সফল হব।

বুধবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে নিজ নির্বাচনী কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীরের সঙ্গে ছিলেন- দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক আমান উল্লাহ আমান,সমন্বয়ক আব্দুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্মমহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, জলবায়ু বিষয়ক সহ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বাবুল, মহানগর উত্তর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বজলুল বাছিত আনজু, এজিএম শামসুল ইসলাম প্রমুখ।

জাহাঙ্গীর বলেন, ‘গত ২৪ অক্টোবর থেকে প্রশাসনের অনুমতি নিয়েও কর্মসূচি করতে পারিনি, প্রতিটি গণসংযোগে আওয়ামী লীগ বাধার সৃষ্টি করেছে।’

তিনি আরও অভিযোগ করেন, ‘গত ৭ নভেম্বর গভীর রাতে ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডে একটি ব্যানার নির্ভর ঘরে আওয়ামী লীগ নিজেরা আগুন দিয়ে ঢাকা-১৮ আসনের বিএনপির ২৩৫ জন নেতার নামে মামলা দিয়েছে। পুলিশ আমাদের নেতাকর্মীদের ঘরে ঘরে গিয়ে হুমকি দিচ্ছে। এমনও বলা হচ্ছে, ১২ তারিখের আগে যদি কাউকে এলাকায় দেখা যায় তাদের মেরে ফেলা হবে। নারী কর্মীরাও নিস্তার পাচ্ছেন না। এভাবেই চলছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আমান উল্লাহ আমান ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্র্বাচনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন ওয়ার্ড-থানার নেতাকর্মীদের বাড়িতে পুলিশি হয়রানির একটি চিত্র তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের যে পরিবেশ তা এখানে পাচ্ছি না। আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। আপনারা দেখেছেন এর আগে ঢাকা-৫ আসনে কীভাবে নির্বাচন হয়েছে। সেখানে পোলিং এজেন্ট বের করে দেয়া হয়েছে, ভোটাদের কেন্দ্র যেতে দেয়া হয়নি।’