শীত বিদায় নিয়েছে! এ সময় শীতের গরম পোশাক গুছিয়ে রাখার পরিকল্পনা নিশ্চয়ই করছেন! সঠিক উপায়ে শীতের ভারি কাপড় সংরক্ষণ না করলে নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এ ছাড়াও কাপড় ধোয়ার কৌশলের কারণে তা সহজেই নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

শীতের কাপড়ের মধ্যে উল, লিনেন, ভেলভেট কিংবা সুতি থাকতে পারে। তাই বলে সব কাপড় পরিষ্কার কিংবা গুছিয়ে রাখার পদ্ধতি এক হবে না। এ ছাড়াও আছে লেপ বা কম্বলের মতো ভারী কাপড়।

অন্যদিকে শীতের পোশাকের মধ্যে আরও আছে- শাল, সোয়েটার, জ্যাকেট অথবা কোট। পশমি কাপড়ই বা বাদ যাবে কেন?

jagonews24

তাই সাধারণ পোশাকের চেয়ে শীতের পোশাক সংরক্ষণের ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম মানতে হয়। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, কীভাবে শীত শেষে গরম পোশাক গুছিয়ে রাখবেন-

>> উলের পোশাক পরিষ্কারের ক্ষেত্রে ড্রাই ওয়াশ করবেন না। এর চেয়ে ভালো উপায় হলো হালকা ডিটারজেন্ট দিয়ে ঠান্ডা পানিতে কাপড় পরিষ্কার করা। এতে কাপড় পরিষ্কারও হবে অন্যদিকে উলের ভাঁজও নষ্ট হবে না।

>> উলের কাপড় ধুয়ে ভালো করে রোদে শুকিয়ে নিন। এরপর হ্যাঙ্গারে ঝুলিয়ে আলমিরাতে রাখুন।

jagonews24

>> উলের কাপড় ধোয়ার জন্য কম ক্ষারযুক্ত সাবান, জেট পাউডার ও শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।

>> পশমি বা উলের কাপড় ইস্ত্রি করার সময় এর ওপর সুতির কাপড় বিছিয়ে নিলে কাপড় অনেক দিন ভালো থাকে।

>> পশমি পোশাকের ক্ষেত্রে ড্রাই ওয়াশ করতে পারেন।

>> লেদারের কাপড় লন্ড্রিতে দিয়ে পরিষ্কার করানো ভালো। লেদার যদি খুব পাতলা হয় তাহলে হোয়াইট টিস্যুর প্যাডিং দিতে ভুলবেন না।

>> জ্যাকেট পরিষ্কারের ক্ষেত্রে ড্রাই ওয়াশ করিয়ে নিন। গুছিয়ে রাখার সময় ব্লেজার রাখার জন্য যেসব প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহৃত হয়; সেগুলোতে জ্যাকেট রেখে ঝুলিয়ে রাখুন আলমারিতে।

jagonews24

>> সোয়েটার আর চাদর ডিটারজেন্ট দিয়ে ধুয়ে নিন। এতে করে কাপড়ের রংও ঠিক থাকবে আর পরিষ্কারও হবে।

>> ইস্ত্রি করার সময় সোয়েটার বা চাদর উল্টে নিন। স্টিম দিয়ে ইস্ত্রি করার চেষ্টা করুন, গরম আয়রন উলে না লাগানোর চেষ্টা করুন।

>> চাদর বা শাল ভাঁজ করে তারপর গোল করে মুড়িয়ে রাখলে অনেক দিন টিকে।

>> লেপ কিংবা কম্বল গুছিয়ে রাখার আগে ভালো করে রোদে দিয়ে নিন। গুছিয়ে রাখার ক্ষেত্রে লেপ বা কম্বলের ভাঁজে কর্পূর বা ন্যাপথালিন দিয়ে রাখতে পারেন। এতে করে কাপড়ের গন্ধ ঠিক থাকবে আর পোকামাকড়ও দূরে থাকবে।

>> এখন সব শীতের কাপড় পরিষ্কার করে সংরক্ষণ করলেও মাঝে মাঝে কিন্তু রোদে দিতে হবে। এতে শীতের কাপড় ভালো থাকবে এবং বাজে গন্ধ হওয়ার সম্ভাবনাও থাকবে না।

jagonews24

>> শীতের মোটা কাপড় ওয়াশিং মেশিনে না ধুয়ে নেয়াই ভালো।

>> রঙিন কাপড় ধোয়ার বেলায় ভিনেগার মিশিয়ে নিন। রঙিন এতে কাপড়ের ঔজ্জ্বল্য ঠিক থাকবে।

>> দীর্ঘদিনের জন্য পোশাক সংরক্ষণ করলে তাতে মাড় না দেওয়াই ভালো। মাড় দেওয়া কাপড় বেশি দিন রেখে দিলে তাতে পোকা আক্রমণ করতে পারে বা ভাঁজে ভাঁজে ছত্রাক হতে পারে।

>> পোশাকের জন্য যদি আলমারি বা ওয়ারড্রোবে জায়গা না থাকে, তাহলে প্লাস্টিকের বড় ও স্বচ্ছ বাক্সে পোশাক রাখতে পারেন। তাহলে বাইরে থেকে দেখেই বোঝা যাবে কোন পোশাকটি বাক্সে আছে।